| |

কোহিনূর ফিরিয়ে আনতে ‘অক্ষম’ ভারত

আপডেটঃ 8:54 pm | April 10, 2016

Ad

অনলাইন ডেস্ক : ভারতের পক্ষে যুক্তরাজ্যের হাতে থাকা ঐতিহাসিক ডায়মন্ড ‘কোহিনূর’ ফিরিয়ে আনা সম্ভব নাও হতে পারে বলে খোদ দেশটির সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। ১৯৭২ সালে করা ৪৩ বছরের পুরনো এ সংক্রান্ত একটি আইনের উল্লেখ করে একথা জানানো হয়। জাতীয় তথ্য জানার অধিকার [আরটিঅাই] আইনের আওতায় ভারতীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআই’র করা একটি আবেদনের জবাবে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় একথা জানায়। খবর পিটিঅাই’র

ভারতের কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় জানায়, দ্য এনটিকিটিজ অ্যান্ড আর্ট ট্রেজার অ্যাক্ট, ১৯৭২’র সংশ্লিষ্ট ধারা অনুযায়ী দেশটির ভূতাত্ত্বিক সার্ভে কেবল ওইসব ঐতিহাসিক মূল্যবান সামগ্রী ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ গ্রহণ করে যেগুলো দেশটি থেকে স্বাধীনতার আগে অবৈধভাবে রপ্তানি করা হয়েছে।

যুক্তরাজ্য থেকে কোহিনূর ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে ভারত সরকার কী কী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে তা জানতে চেয়ে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে একটি আবেদন করেছিল পিটিআই। যেহেতু সংস্কৃতির সঙ্গে সম্পর্কিত ঐতিহাসিক সামগ্রী ফিরিয়ে অানা সংক্রান্ত বিষয়গুলো সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় দেখে থাকে সেহেতু পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আবেদনটি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে ফরোয়ার্ড করে।

উল্লেখ্য, কোহিনূর [পর্বতের অালো] একটি বড় অাকারের বর্ণহীন ডায়মন্ড যা সম্ভবত তেরশ’ শতাব্দীর দিকে ভারতের অন্ধপ্রদেশের গুনতুরে পাওয়া যায়। আনকাট অবস্থায় এর ওজন ছিল ৭৯৩ ক্যারট [১৫৮.৬ গ্রাম] এবং এটির প্রথম মালিকানা ছিল কাকাতিয়া ডাইনেস্টি। পরে এটি কয়েকবার হাত বদল হয়ে অবশেষে ১৮৪৯ সালে ব্রিটিশরা পাঞ্জাব জয় করলে এটি রানী ভিক্টোরিয়ার দখলে চলে যায়। ডায়মন্ডটি ব্রিটেনের বর্তমান রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের রাজমুকুটে আছে বলে মনে করা হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ