| |

পাঁচ তরুণীর জীবন সংগ্রাম দর্শকের মন ছুঁয়ে যাবে : টয়া

আপডেটঃ 7:11 pm | April 16, 2016

Ad

আলোকিত ময়মনসিংহ : পাঁচ তরুণীর গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে নতুন ধারাবাহিক নাটক ‘সুপার গালর্স’। জি-টিভিতে নাটকটির প্রচার শুরু হচ্ছে আজ শনিবার, ১৬ এপ্রিল রাত ১১টা থেকে।

এরপর থেকে সপ্তাহের শনি থেকে বৃহস্পতিবার একই সময়ে। এতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন- মুমতাহিনা চৌধুরী টয়া, নাদিয়া আফরিন মিম, সাফা কবির, কেয়া রহমান ও অন্বেষা। নাটকটি পরিচালনা করছেন তানিম রহমান অংশু। চিত্রনাট্য সাজিয়েছেন ইন্ডিয়ান সিরিয়ালের স্ক্রিপ্ট লেখক প্রিয়া ওয়াল।

‘সুপার গার্লস’ ধারাবাহিক নাটকে লাক্স সুন্দরী টয়াও রয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে। এই নাটক ও তার চরিত্র নিয়ে টয়া কথা বললেন জাগো নিউজের সঙ্গে-

‘সুপার গার্লস’ নাটকে আপনার চরিত্রটি কেমন?
টয়া : এই নাটকে দর্শকরা আমাকে একজন অভিনেত্রীর ভূমিকায় দেখতে পাবেন। মানে একজন অভিনেত্রীর কথাবার্তা, চলাফেরা, আচার ব্যবহার- এক কথায় একজন তরুণ অভিনেত্রীর লাইফস্টাইল কেমন সেটা আমার চরিত্রে ফুটে উঠবে। মধ্যবিত্ত পরিবারের এই মেয়েটিকে অভিনেত্রী হওয়ার জন্য প্রচুর স্ট্রাগল করতে হয়। নাটকে আমার চরিত্রের নাম টয়া। এমনটা কিন্তু খুব বেশি নাটকে দেখা যায়না। ব্যাপারটা কিন্তু ইন্টারেস্টিং!

নাটকের টয়া আর বাস্তবের টয়ার মধ্যে মিল-পার্থক্য কতোটুকু?
টয়া : দুজনই মানুষ। তবে বাস্তব জীবনের টয়া অনেক হাসিখুশি, প্রাণোচ্ছল। এই নাটকের টয়া অনেক বেশি সিরিয়াস সবকিছুতে। সংগ্রাম করে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বলেই হয়তো তার মধ্যে একটা কাঠিন্যতা আছে।

 আজকাল তো ধারাবাহিক নাটকগুলোর গল্প নিয়ে অনেক অভিযোগ শোনা যায়। একঘেয়েমি, চরিত্র ও সংলাপের লজিক নেই, নকল ইত্যাদি ইত্যাদি। সেক্ষেত্রে ‘সুপার গার্লস’ নাটকটিকে অন্য সব নাটক থেকে কীভাবে আলাদা করবেন দর্শক?
টয়া : এই নাটকে অনেক বৈচিত্র রয়েছে। যেমন যিনি নাটকের চিত্রনাট্য সাজিয়েছেন তিনি ইন্ডিয়ান জনপ্রিয় সব সিয়িয়ালের গল্প লেখক। তার চিত্রনাট্যে নির্মিত হয়েছে ‘রিমিক্স’, ‘ইয়েস বস’, ‘কাহানি ঘার ঘার কী’, ‘পেয়ার কী ইক কাহানি’ ইত্যাদি জনপ্রিয় সিরিয়ালগুলো। তাছাড়া আমি বলবো এই নাটকের এডিটিং অন্য নাটকগুলো থেকে একেবারেই আলাদা। কাহিনিটাও ভিন্ন। এখানে সুখ-দুঃখ এবং প্রেম-বিরহ সবকিছুু ফুটে উঠবে বাস্তব জীবনের মতোই। তবে নাটকের সবচেয়ে বড় টুইস্ট হবে পাঁচ তরুণীর পাঁচ পদের সংগ্রাম। পাঁচ তরুণীর জীবন সংগ্রাম দর্শকের মন ছুঁয়ে যাবে। এমনটা কিন্তু আমাদের বর্তমান নাটকগুলোতে দেখা যায়না বললেই চলে। আর নাটকে আমাদের কস্টিউম, মেকিং থেকে শুরু করে সবকিছুর মধ্যে রয়েছে নতুনত্ব। দর্শকরা খুব সহজেই অন্য নাটকগুলো থেকে এটিকে আলাদা করতে পারবেন এবং এটি উপভোগ করবেন।

নামটা ‘সুপার গার্লস’ কেন?
টয়া : গল্পের সঙ্গে এ নাটকে নামের সার্থকতা আছে বলে আমি মনে করি। কারণ ‘সুপার গার্লস’ পাঁচজন তরুণীর পরিশ্রম করে স্বাবলম্বী হওয়ার গল্প। ফ্যামিলি ছেড়ে তারা কতটা পরিশ্রম করে আমাদের সোসাইটিতে বাস করে সেই চিত্র ফুটে উঠবে। তাদের চলার পথে নানা বাধা-বিপত্তি সেইসঙ্গে আরো কিছু ব্যাপার আছে যেগুলোর দর্শকরা দেখলে বুঝতে পারবেন।

গল্পে অন্য চার তরুণীর চরিত্রগুলো কেমন?
টয়া : পাঁচ তরুণীর কেচ্ছা নিয়েই সুপার গার্লস। তারমধ্যে আমি অভিনেত্রীর ভূমিকায় আছি। আর সাফা কবির উপস্থাপক, ক্লোজআপ ওয়ানের সিঙ্গার কেয়া সংগীতশিল্পীর ভূমিকায়, লাক্স সুন্দরী প্রতিযোগিতায় প্রথম হওয়া নাদিয়াকে দেখা যাবে মডেলের ভূমিকায়। আর অন্বেষাকে দেখা যাবে বাস্কেটবল খেলোয়ারের ভূমিকায়। এদের উত্থান-পতনের গল্প নিয়েই চলবে সুপার গার্লসদের গল্প।

বর্তমান ব্যস্ততা সম্পর্কে বলুন…..
টয়া : সুপার গার্লস নিয়েই ব্যস্ত আছি। নাটকে আমার চরিত্রটি খুব মনে ধরেছে। তাই মনযোগ দিয়ে কাজ করছি। এ নাটকের জন্য অনেকগুলো নাটকের কাজও ফিরিয়ে দিয়েছি। শুধু তাই নয় আগামী ঈদেও হয়তো কাজ করা হবে না শুধু এই নাটকের জন্য। সত্যি কথা বলতে নাটকটি নিয়ে আমি খুব আশাবাদী। ভালো কাজ বছরে একটি হলেও আপত্তি নেই। তবে এর ফাঁকে আমার আগের ধারাবাহিকগুলো প্রচারে আছে। সেগুলোরও শুটিং করতে হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ