| |

ময়মনসিংহে আদালত চত্বরে সাংবাদিককে পিটানোর ঘটনায় সাবেক ভূমিমন্ত্রীর জামাতার বিরুদ্ধে মামলা

আপডেটঃ 7:12 pm | May 17, 2016

Ad

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:
ময়মনসিংহে আদালত চত্বরে সাংবাদিক পিটানোর ঘটনায় কোতোয়ালী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগী সাংবাদিক ওমর ফারুক সুমন। সোমবার দিবাগত রাতে হাসিবুল হক রানা (৪০) ও তার ছোট ভাই রাসেল (৩৩) এর নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত আরো ৮ থেকে ১০ জনকে আসামী করে হত্যা প্রচেষ্টার অভিযোগে এ মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলা নং -৫৮। এ মামলার প্রধান আসামী হাসিবুল হক রানা সাবেক ভূমিমন্ত্রী ও জামালপুর সদর আসনের এমপি রেজাউল করিম হীরার মেয়ের জামাই।
ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, আদালত চত্বরে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় নিয়মিত মামলা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশী তৎপরতা অব্যাহত আছে।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, একটি মামলায় হাজিরা দিতে গত রবিবার আদালতে এসেছিলেন দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার হালুয়াঘাট প্রতিনিধি ওমর ফারুক সুমন। হাজিরা শেষে আদালত চত্বরে সিনিয়র আইনজীবি এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলের চেম্বারের সামনে আসলে শহরের আকুয়া এলাকার হাসিবুল হক রানা ও তার ছোট ভাই রাসেলসহ ৮/১০ জন লোক তার পথ রোথ করে। এ সময় সাংবাদিক সুমনকে ছিনতাইকারী আখ্যা দিয়ে তারা বেদড়ক পেটায়। এ সময় সুমন চিৎকার করে বলে আমি ছিনতাইকারী নই, আমি সাংবাদিক আমাকে মারবেন না। এক পর্যায়ে আক্রমনকারীরা সুমনের মানবজমিন পত্রিকার দেয়া আইডি কার্ডটিও কেড়ে নেয়। পরে তাকে ছিনতাইকারী বলে কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশের কাছে ধরিয়ে দেয়। খবর পেয়ে স্থানীয় সাংবাদিকরা তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (মমেক) ভর্তি করে।
এ মামলার বাদী দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার হালুয়াঘাট প্রতিনিধি ওমর ফারুক সুমন জানান, আমার মামলার বাদীর সাথে আতাঁত করে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে রানা ও তার ভাই রাসেল লোকজন নিয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্য মারধর করে এবং গায়ের কাপড় চোপড় খুলে ফেলে চরম ভাবে অপদস্থ করে। তিনি জানান, আমি মমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায়ও আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়ায় আমি এখন একটি বেসরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছি।
এ বিষয়ে গনতান্ত্রিক আইনজীবি সমিতির সাধারন সম্পাদক এডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু জানান, আদালত চত্বরে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনা খুব নিন্দনীয়। তিনি এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানান।

ব্রেকিং নিউজঃ