| |

ময়মনসিংহের গর্ব কলসিন্দুরের মেয়েরা জেলা পুলিশের সংবর্ধনায় আনন্দিত

আপডেটঃ 6:14 pm | May 21, 2016

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পি:
এএফসি অনুর্ধ্ব-১৪ বালিকা আঞ্চলিক ফুটবল চ্যাম্পিয়ন (দনি ও মধ্যাঞ্চল) টুর্নামেন্টে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ মহিলা ফুটবল দলের সদস্য ময়মনসিংহ জেলার ধোবাউড়া থানার কলসিন্দুর স্কুল এন্ড কলেজের কৃতি ফুটবলারদের সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার (২০ মে) রাতে ময়মনসিংহ নগরীর অ্যাডভোকেট তারেক স্মৃতি অডিটোরিয়ামে (টাউন হল) এ ফুল আর ভালোবাসা দিয়ে পুলিশ অপরাজেয় ময়মনসিংহের গর্ব কলসিন্দুরের মেয়েরা জেলা পুলিশের সংবর্ধনায় আনন্দিত।
জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হক স্বাগত বক্তব্যে অন্তরের অন্ত:স্থল থেকে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, “গর্জে উঠা বাংলাদেশ” যারা গর্জে উঠতে ভূমিকা রেখেছে তাদেরকে ফ্রেমবন্দী করতে চাই। এরপর অনুষ্ঠিত হয় ফটোসেশন।
ময়মনসিংহের জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মঈনুল হকের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ধর্মমন্ত্রী অধ্য মতিউর রহমান।
বিশেষ অতিথি ছিলেন ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন, পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন, জেলা পরিষদের প্রশাসক অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা, অতিরিক্ত ডিআইজি ড. আক্কাছ উদ্দিন ভুঞা, জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী, ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু, ২৭ বিজিবির অধিনায়ক, র‌্যাব১৪ এর ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক সাজ্জাদ জাহান চৌধুরী শাহীনসহ প্রশাসনিক বিভিন্ন কর্মকর্তারা।
সংবর্ধনায় অংশ নেন-দলের ক্যাপ্টেন মারজিয়া খাতুন, ১০ গোরদাতা বাংলাদেশের মেসি তহুরা খাতুন, তাছলিমা খাতুন আকলিমা, নাজমা আক্তার, মারিয়া মান্না, মাহমুদা আক্তার, শামসুন্নাহার, সানজিদা আক্তার, শিউলী আজিম, ইয়াছমীন আক্তার, কল্পনা আক্তার, সাবিনা আক্তার, পূর্নিমা, সালমা আক্তার, শামছুন্নাহার, রোজিনা আক্তার, বালশ্রি মানকিন সহ কলসিন্দুরের মেয়েদের স্কুল এন্ড কলেজের প্রিন্সিপাল জালাল উদ্দিন, সহকারী অধ্যাপক মালা রানী সরকার, সহকারী প্রধান শিক রতন মিয়া, শরীর চর্চা শিক জাবেদ আলী, মিনতি রানী শিল, কোচ সহকারী শিক মফিজ উদ্দিন, জেলা ফুটবল কোচ নজরুল হোসেন, বোরহান উদ্দিন।
পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়। শুরুতে সাংবাদিক মতিউল আলম এর কন্যা প্রিমিয়ার আইডিয়াল স্কুলের কেজির ছাত্রী মারিয়া ফুটবল কন্যাদের উদ্দেশ্য গান পরিবেশন করে।
এরপর জেলা পুলিশের সাংস্কৃতিক দলের সদস্য সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) সীমা রাণী সরকার পরিবেশন করেন নজরুল সঙ্গীত। এরপর একে একে ওই সাংস্কৃতিক দলের সদস্যদের গান, নৃত্যের প্রাণবন্ত পরিবেশনার পর রাত ৯টায় শুরু হয় লোকগীতি আর ক্যাসিক্যাল মিউজিকের সম্রাট বারী সিদ্দিকীর গান সঙ্গে ছিলেন ইংল্যান্ডে পড়াশোনা করা কন্ঠশিল্পী সিদ্দিকীর মেয়ে এলমা সিদ্দিকীকে।

ব্রেকিং নিউজঃ