| |

ঢাবির দুই প্রো-ভিসি ও কোষাধ্যক্ষের মেয়াদ শেষ, নতুন নিয়োগ শিগগিরই

আপডেটঃ 9:40 pm | June 09, 2016

Ad
 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) প্রশাসনের তিন গুরুত্বপূর্ণ পদ প্রো-ভিসি (শিক্ষা), প্রো-ভিসি (প্রশাসন) ও কোষাধ্যক্ষের মেয়াদ শেষ হয়েছে। গত ৬ জুন বিশ্বদ্যালয়ের শীর্ষ ওই তিন কর্মকর্তা শেষ অফিস করেন।

এ তিন পদের নিয়োগের নথি থেকে দেখা যায়- ২০১২ সালের ৬ জুন অধ্যাপক ড. নাসরিন আহমেদকে প্রো-ভিসি (শিক্ষা), অধ্যাপক ড. সহিদ আখতার হুসাইনকে প্রো-ভিসি (প্রশাসন) ও অধ্যাপক ড. মো. কামাল উদ্দিনকে কোষাধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। নিয়োগপত্রে স্বাক্ষর করেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তৎকালীন উপ-সচিব (বিশ্ববিদ্যালয়-২) লায়লা আরজুমান বানু।

পদ তিনটিতে নতুন নিয়োগ দেওয়ার আগ পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন দায়িত্ব পালন করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ‍াচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

উপাচার্যের পরে মর্যাদার দিক থেকে শীর্ষ এ তিন পদে শিগগিরই নতুন তিনজনকে নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে বলে দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, শিগগিরই ওই তিন পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। তবে নিয়োগ দেওয়ার এখতিয়ার সম্পূর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য (রাষ্ট্রপতি) দপ্তরের ওপর। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য চাইলে ওই তিন পদের জন্য নাম সুপারিশ করতে পারেন।

দুই প্রো-ভিসি ও  কোষাধ্যক্ষের মেয়াদ শেষ হওয়ায় তাদের পদগুলো বর্তমানে শ‍ূন্য। নতুন নিয়োগ দেওয়ার আগ পর্যন্ত ওই তিন দপ্তরের দায়িত্ব উপাচার্য হিসেবে তিনিই পালন করছেন বলে জানান অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক।

ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে ২০১২ সালের ৫ জুন তৎকালীন প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. হারুন অর রশীদ এবং কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান একসঙ্গে পদত্যাগ করেন।

এর পরের দিনই (৬ জুন) প্রো-ভিসি পদটিকে শিক্ষা ও প্রশাসনে দুই ভাগ করে ভ‍ূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. নাসরিন আহমেদকে প্রো-ভিসি (শিক্ষা) এবং মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. সহিদ আখতার হুসাইনকে প্রো-ভিসি (প্রশাসন) পদে নিয়োগ দেওয়া হয়। কোষাধ্যক্ষ পদে নিয়োগ দেওয়া হয় আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. কামাল উদ্দিনকে।

তিনজনেরই নিয়োগ একই দিনে কার্যকর হয়। চার বছর দায়িত্ব পালনের পর তাদের মেয়াদও শেষ হলো ২০১৬ সালের সেই একই দিনে।

সরকার ঘনিষ্ঠ অধ্যাপক হারুন অর রশীদকে পরবর্তীতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এবং অধ্যাপক মীজানুর রহমানকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার।

ব্রেকিং নিউজঃ