| |

হালুয়াঘাট ও ধোবাউড়া রাজনীতিতে মানকিনের পুত্র জুয়েল আরেং এর প্রাক নির্বাচনী গনসংযোগ শুরু

আপডেটঃ 6:09 pm | June 13, 2016

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী: ময়মনসিংহ-১ (হালুয়াঘাট ও ধোবাউড়া) আসনে সদ্য প্রয়াত সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট প্রমোদ মানকিন এমপির মৃত্যুর পর এ সংসদীয় আসনটি শূন্য হয়।
তফসিল অনুযায়ী আগামী ১৮ জুলাই ভোটের দিন ধার্য করা হয়েছে। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২০ জুন। মনোনয়নপত্র বাছাই ২২ জুন। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৯ জুন।
নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষনার পরই মতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে  হালুয়াঘাট ও ধোবাউড়ার রাজনীতিতে সদ্য প্রয়াত এমপি সমাজকল্যান প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট প্রমোদ মানকিনের পুত্র নতুন প্রজন্মের সম্ভাবনাময়ী জননেতা জুয়েল আরেং নির্বাচনী প্রাক গনসংযোগ সূচনা করেন জুয়েল।
গত রবিবার দিনব্যাপী কর্মসূচিতে তিনি ধোবাউড়া ও হালুয়াঘাট উপজেলার সবকটি ইউনিয়নের দলীয় কার্যালয়ে গিয়ে যুবলীগ, ছাত্রলীগ, আওয়ামীলীগের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী জুয়েল আরেং এর সমর্থনে মতবিনিময়, পথসভা ও গনসংযোগ করেন।
এ সময় তিনি ঘোষগাও, গোয়াতলা, বাঘড়ে, ধোবাউড়া, সদর পোড়াকান্দলিয়া, গামারিতলা, দনি মাইজপাড়া, গাজীর ভিটা ইউনিয়ন পরিভ্রমন করেন। পরিভ্রমনকালে পথে পথে সর্বস্থরের মানুষের সাথে কথা বলেন ও গনসংযোগ করেন।
উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক খোকন বলেন, আজ আমরা হালুয়াঘাট ধোবাউড়াবাসী ও আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা অবিভাবক শূন্য। আমাদের উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি সদ্য প্রয়াত জননেতা প্রমোদ মানকিন এমপির মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। কিন্তু রাজনৈতিক যে শিা তিনি আমাদের দিয়ে গেছেন তার ধারক হিসেবে আমরা তার সুযোগ্য পুত্র জুয়েল আরেংকে আমাদের মাঝে পেয়ে আনন্দিত। তিনি বলেন, আমরা রাজনৈতিকভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি জুয়েল আরেংকে আসন্ন উপনির্বাচনে দলীয় মনোনয়নে প্রার্থী হিসেবে দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা ও জনগনের সামনে রাখতে চাই।
জুয়েল আরেং বলেন, আমার বাবা প্রমোদ মানকিন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও জননেত্রী শেখ হাসিনার নেত্রীত্বে আওয়ামীলীগের রাজনীতি করেছেন জনগনের কল্যানে কাজ করতে। আজ তিনি নেই আজ আমি আপনাদের মাঝে এসেছি আপনাদের দোয়া ও সমর্থন চাইতে। আপনাদের অনুমতি পেলে আমি আসন্ন উপ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রার্থী হব।

13427825_1553546954947213_3377824593519486157_n
উল্লেখ্য, এ আসনের উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে সম্ভাব্য প্রার্থী জুয়েল আরেং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, এবং ব্যানার-ফেস্টুন, তোরণ নির্মাণ, পথসভা ও পরিচিতি সভাসহ বিভিন্ন ধরনের প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। স্থানীয় ভোটারদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ। ভোটারদের দেওয়া হচ্ছে নানা প্রতিশ্র“তি।

ব্রেকিং নিউজঃ