| |

বর্তমান সরকার ও পুলিশ জঙ্গী এবং মাদকের ব্যাপারে জিরো টলারেন্স পুলিশ সুপার

আপডেটঃ 4:03 am | August 09, 2016

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী ॥ সোমবার সকাল ১১টায় ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপারের কনফারেন্স রুমে মহানগরের সুধীজনদের সাথে নবনিযুক্ত পুলিশ সুপার মতবিনিময় সভা করেন। এতে বিভিন্ন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিবৃন্দ ও সুধীজন উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত সুধীজনদের সাথে পরিচয় পর্বের পর এসপি সৈয়দ নুরুল ইসলাম বলেন, দেশের সামনে আজ বড় সমস্যা হল জঙ্গী সন্ত্রাস ও মাদক । এগুলোকে নির্মূল করতে হলে সবার সহযোগিতার প্রয়োজন। মাদক ও জঙ্গী সমস্যা সমাধান করতে হলে সবাইকে সচেতন হতে হবে। নিজ নিজ সদস্যদের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। প্রত্যেকের সন্তানদের বুঝাতে হবে প্রকৃত ইসলাম কি?। ইসলাম সমন্ধে ধারনা দিতে হবে। ইসলাম কখনো হত্যার মাধ্যমে কায়েম হয় নাই। হযরত মুহাম্মদ (সা:) ভালবাসা ও স্নেহ দিয়ে ইসলাম প্রচার করেছেন। নিরীহ মানুষকে বিনা করনে হত্যা মহান আল্লাহ নিষিদ্ধ করেছেন। তিনি আরো বলেন, অন্য ধর্মের লোকদের দ্বারা আক্রান্ত না হলে হত্যা করা হারাম। যারা আতœহত্যা করে তারা কোন দিন বেহেস্তে যাবে না। তাই সুইসাইড স্কোয়াডের মাধ্যমে বোমা ফাটিয়ে যারা নিজে এবং অন্যদেরকে হত্যা করে তারাও বেহেস্তে যাবে না। মাদক ব্যবসায়ীদের সমন্ধে তিনি বলেন মাদক শুধুমাত্র একজন লোককে ধ্বংস করে না। পুরো সমাজ ও জাতীকেও ধ্বংস করে। তাই বর্তমান সরকার ও পুলিশ জঙ্গী এবং মাদকের ব্যাপারে জিরো টলারেন্সে বিশ্বাস করে। যানজট নিরসনের ব্যাপারে তিনি বলেন, যানজটের সাথে সংশ্লিষ্ট সবার সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। অটোরিক্সা, ইজিবাইক ও থ্রিহলার চলাচলের ব্যাপারে বর্তমান বিরোধী দলীয় নেত্রী রওশন এরশাদ, ধর্মমন্ত্রী বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অধ্যক্ষ  মতিউর রহমান এবং পৌরসভার মেয়র মো: ইকরামুল হক টিটু‘র সাথে কথা বলে সিন্দান্ত নেয়া হবে। ঐক্যবদ্ধ সিন্দান্ত ছাড়া এই সমস্যার সমাধান সম্ভব না। মতবিনিময় সভায় মহানগরীর সুধীজনরা বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে বক্তব্য রাখেন। উত্তরে তিনি বলেন, নতুন এসেছি, আপনাদের বক্তব্য শোনলাম, আমি আপনাদের উল্লেখিত সমস্যা গুলো সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব। মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের আইনজীবি সমিতির সভাপতি এড. বাঁধন কুমার গোস্বামী, সাধারন সম্পাদক এড. নুরুল হক, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ন সাধারন সম্পাদক এহতেশামুল আলম, জেলা মটর মালিক সমিতির সভাপতি ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব মমতাজ উদ্দিন মন্তা, জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক আলোকিত ময়মনসিংহ পত্রিকার সম্পাদক প্রদীপ ভৌমিক, জেলা নাগরিক আন্দোলন ও উন্নয়ন পরিষদের সাধারন সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার নুরুল আমীন কালাম, উত্তেফাকুল ওলামা বৃহত্তর ময়মনসিংহের সাধারন সম্পাদক মাও: মনসুরুল হক খান, জেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ও মহানগর কমিউনিটি পুলিশের সাধারন সম্পাদক এড. এ.বি.এম নুরুজ্জামান খোকন, দোকান মালিক সমিতির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোসলেম উদ্দিন, জেলা পুঁজা উদযাপন কমিটির সাধারন সম্পাদক এড. রাখাল সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর সাহা, সাবেক কমিশনার বাবুল রায়, অনন্তময়ী আশ্রম ও প্রবর্তক সংঘের সহ-সভাপতি শীতেষ পাল এবং রামকৃষ্ণ মিশন ও চার্চের প্রতিনিধিবৃন্দ। এসময় পুলিশ প্রশাসনের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন অতি: পুলিশ সুপার নুরে আলম, অতি: পুলিশ সুপার হামিদুল হক, অতি: পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম, ডিআই-১ হেলাল উদ্দিন, কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: কামরুল ইসলাম, জেলা ট্রাফিক পরিদর্শক সৈয়দ মাহবুবুর রহমান প্রমুখ।

ব্রেকিং নিউজঃ