| |

গত অর্থবছরে মোবাইল কোম্পানি থেকে আয় ১৫০৭ কোটি টাকা

আপডেটঃ 12:39 am | October 03, 2016

Ad

স্টাফ রিপোর্টার: ২০১৫-১৬ অর্থবছরে মোবাইল কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে সরকারের আয় ১ হাজার ৫০৭ কোটি ৫ লাখ টাকা।

সংসদে রোববার সরকারি দলের সদস্য মোহা. গোলাম রাব্বানীর এক প্রশ্নের জবাবে ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের পক্ষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে রেভিনিউ শেয়ারিং বাবদ ১ হাজার ১৩৭ কোটি ৯৮ লাখ টাকা, লাইসেন্স ফি বাবদ সাড়ে ৪০ কোটি টাকা এবং স্পেকট্রাম চার্জ বাবদ ৩২৮ কোটি ৫৬ লাখ টাকা আদায় হয়েছে।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে মোবাইল কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে ১ হাজার ৩৬৯ কোটি ৯৬ লাখ টাকা আদায় হয়েছে।

এরমধ্যে মোবাইল কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে রেভিনিউ শেয়ারিং বাবদ ১ হাজার ১৬ কোটি ৬১ কোটি, লাইসেন্স ফি বাবদ সাড়ে ৪০ কোটি এবং স্পেকট্রাম চার্জ বাবদ ৩১২ কোটি ৮৫ লাখ টাকা আদায় হয়েছে।

তিনি বলেন, মোবাইল কোম্পানিগুলোর মধ্যে টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের কাছে ১ হাজার ৬১০ কোটি ৯ লাখ টাকা এবং প্যাসিফিক বাংলাদেশ টেলিকম লিমিটেড (সিটিসেল) এর কাছে ৪৮৪ কোটি ৪৭ লাখ টাকা বকেয়া রয়েছে। টেলিটক রাষ্ট্রায়ত্ত বিধায় এই বকেয়া ইকুইটি বা পেইড আপ ক্যাপিটাল হিসাবে এডজাস্ট করার এখতিয়ার সরকারের রয়েছে। এ সংক্রান্ত প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয়ে বিবেচনাধীন রয়েছে।

১০ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন 

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, সারাদেশের ১০ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হবে।

তিনি আজ সংসদে সরকারি দলের হুইপ শহীদুজ্জামান সরকারের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার ইতোমধ্যে সারাদেশে ৫ হাজার ৫শ’ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল ল্যাব এবং ৩০ হাজার প্রতিষ্ঠানে মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপন করা হয়েছে। তিনি বলেন, দেশে ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত ১ লাখ ৭০ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠিান রয়েছে।

তিনি বলেন, দেশকে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের মহাসড়কে পৌঁছানোর উদ্যোগ গ্রহণ করায় গত ১৯ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয় ‘তথ্য প্রযুক্তি অ্যাওয়ার্ড’ লাভ করেছেন।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ২০১৮ সালের মধ্যে দেশের আইটি সেক্টরের রপ্তানি আয় ১ বিলিয়নে পৌঁছবে। এই খাতের রপ্তানি আয় ২০২১ সালে ৫ বিলিয়ন উন্নীত হবে। বর্তমানে দেশের রপ্তানি আয় ৩৩ বিলিয়ন বলে তিনি উল্লেখ করেন।

মানব সম্পদ উন্নয়নে ফাউন্ডেশন ট্রেনিং প্রদান করা হচ্ছে

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ হাজার আইটি গ্রাজুয়েটকে আইটি টপ আপ এবং ২০ হাজার লোককে ফাউন্ডেশন ট্রেনিং প্রদান করা হচ্ছে।

তিনি আজ সংসদে সরকারি দলের সদস্য মো. ইসরাফিল আলমের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার আইসিটি খাতে মানব সম্পদ উন্নয়নে সুদূরপ্রসারী কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। ‘লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ এমপ্লয়মেন্ট এন্ড গভর্নেন্স’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ৩৪ হাজার জন আইটি প্রফেশনাল তৈরির লক্ষ্যমাত্রা গ্রহণ করা হয়েছে। এফটিএফএল তৈরির অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে ৩৮৮ জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশব্যাপী ফ্রি-ল্যান্সার তৈরির লক্ষ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে ১৮০ দশমিক ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট শীর্ষক একটি প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ প্রকল্পের আওতায় দেশব্যাপী ইউনিয়ন পর্যায়ে ১২০ জন মহিলাকে বেসিক আইটি লিটারেসির ওপর প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। প্রফেশনাল আউটসোর্সিং বিষয়ে ২০০ ঘন্টাব্যাপী প্রশিক্ষণ পরিচালনার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

ব্রেকিং নিউজঃ