| |

ময়মনসিংহ বিভাগে দুর্গোৎসব : চলছে শেষ মুহূর্তের কারুকাজ ব্যাস্ত প্রতিমা শিল্পীরা

আপডেটঃ 9:04 pm | October 05, 2016

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী: ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আর একদিন পরই শুরু হচ্ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব। আর শেষ সময়ে প্রতিমাকে সাজানোর কাজে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন ময়মনসিংহের প্রতিমা শিল্পীরা। পাশাপাশি মন্ডপের প্যান্ডেলগুলোকেও সাজানো হচ্ছে সাধ্যমত।
ভক্তরা প্রতিমা এবং প্যান্ডেল দেখে খুশি হলেই সার্থক হবেন এসব শিল্পীরা। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত কাজ করছেন। চলছে শেষ সময়ের প্রস্তুতি। এদিকে পুলিশ প্রশাসনের প থেকে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে পূজা মন্ডপগুলোতে।
এদিকে জেলা প্রশাসনের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ কার্যলয় সূত্রে জানা গেছে, ৫শ’ কেজি করে ময়মনসিংহ বিভাগের প্রতিটি পূজামন্ডপে চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ময়মনসিংহ জেলায় ৭০৬ টি, নেত্রকোনা জেলায় ৪৪৩, জামালপুর জেলায় ১৯০, শেরপুর জেলায় ১৪২ টি পূজামন্ডপে এ পূজা অনুষ্ঠিত হবে।
ময়মনসিংহ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এড. প্রনব সাহা জানান, শারদীয় দুর্গোৎসব উপলে নেওয়া হয়েছে ব্যাপক আয়োজন। তবে গত বছরের তুলনায় এ বছর প্রতিমা তৈরিতে দ্বিগুণ ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে। তার পরও আমাদের পূজার আয়োজন থেমে নেই।
ময়মনসিংহ মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের আহবায়ক প্রদীপ ভৌমিক জানান, সরকারের প থেকে শারদীয় দুর্গাপূজা ভালভাবে উদযাপনের ল্েয মন্ডপপ্রতি ৫শ’ কেজি করে চাল বরাদ্দ দিয়েছে। জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের প থেকে শারদীয় দুর্গাপূজা শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপনের ল্েয সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।
ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার সৈয়ন নুরুল ইসলাম জানান, প্রতিটি পূজামন্ডপে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। প্রতিটি পূজামন্ডপে আনসার, গ্রাম পুলিশ, পুলিশ নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবে। পাশাপাশি সাদা পোশাকে গেয়েন্দা পুলিশ ও র‌্যাবের টহল থাকবে। শান্তিপূর্ণভাবে আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজা সম্পন্ন হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।
ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি চৈধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা উপল্েয ময়মনসিংহ বিভাগীয় পুলিশের প থেকে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। সার্বনিক মনিটরিংয়ের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে সকল পূজা মন্ডপগুলোকে। কোন কুচক্রী মহল যাতে কোন ভাবেই পূজার পরিবেশ বিঘিœত করতে না পারে তার জন্য নেয়া হয়েছে বিশেষ পদপে। পূজা শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে পুলিশ প্রশাসন সদা তৎপর থাকবে বলেও জানান তিনি।

ব্রেকিং নিউজঃ