| |

২০তম জাতীয় সম্মেলন আ. লীগের সম্মেলনে দলের ইতিহাস-ঐতিহ্যের প্রদর্শনী

আপডেটঃ 2:15 am | October 23, 2016

Ad

স্টাফ রিপোর্টার : আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে আসতে শুরু করেছেন নেতা-কর্মীরা। শনিবার (২২ অক্টোবর) সকাল ৭টা থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে নেতাকর্মীরা আসছেন। পল্টন, মতিঝিল, শাহবাগসহ বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে নেতা-কর্মীদের সম্মেলনস্থলে আসতে দেখা যায়।
‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে চলেছি দুর্বার, এখন সময় বাংলাদেশের মাথা উঁচু করে দাঁড়াবা ’- এই স্লোগান সামনে রেখে উপমহাদেশের ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক সংগঠন আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলন শনিবার (২২ অক্টোবর) শুরু হয়েছে। সকাল ১০: ০৫ মিনিটে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বেলুন ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে দুই দিনব্যাপী এ বর্ণাঢ্য সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
২০তম জাতীয় সম্মেলন দলের ইতিহাস-ঐতিহ্যের বর্ণিল প্রদর্শনী নিয়ে হাজির হয়েছে আওয়ামী লীগের গবেষণা সেল সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই)। সম্মেলনস্থল সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বিশাল জায়গাজুড়ে এই প্রদর্শনী শনিবার দেশের নানা প্রান্ত থেকে আসা নেতাকর্মীদের নজর কাড়ে। উদ্যানের লেকের পশ্চিম পাশে বড় আকারের বিলবোর্ডে তুলে ধরা হয় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ। বড় বড় অক্ষরে ছাপানো এ ভাষণের সামনে দাঁড়িয়ে ছবি তোলার হিড়িক পড়ে কাউন্সিলর ও ডেলিগেটসহ কাউন্সিলে আগত অতিথিদের।
তাদেরই একজন ময়মনসিংহ থেকে আসা আওয়ামী লীগ কর্মী আজিজ আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধু এই মাঠে ৭ই মার্চের ভাষণ দিয়েছিলেন। বড় আকারে তুলে ধরা এ ভাষণ দেখছি এবং ছবি তুলছি। এটা আমাদের উজ্জীবিতও করছে। ‘ছবিতে বঙ্গবন্ধু’ শিরোনামের ইন্সটলেশনে ফুটে ওঠে টুঙ্গিপাড়ার ছোট্ট খোকা থেকে শেখ মুজিবুর রহমানের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু হয়ে উঠার নানা ঘটনাবলি। স্বাধীনতা স্তম্ভের ওই লেকপাড়ে বড় আকারে প্রদর্শন করা হয় ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পথচলা (১৯৪৯-২০০৮)’। ছবিসহ গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার তুলে ধরা প্রদর্শনীতে ইতিহাসের ধারাবাহিকতা ফুটে উঠে আগতদের কাছে। খোলা মাঠে চমৎকার করে সাজানো ‘জননেত্রী শেখ হাসিনার ভোট ও ভাতের অধিকারের জন্য সংগ্রাম (১৯৮১-১৯৯৬)’ প্রদর্শনীতে স্থান পায় আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে আসার পর থেকে বর্তমান সভানেত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কর্মকা-ের নানা মুহূর্ত।
এছাড়া দুটি পৃথক স্টল থেকে বিভিন্ন প্রকাশনা, শো-পিস, ব্যাজ ও পোস্টারসহ নানা পণ্য বিলির পাশাপাশি বিক্রিও করে সিআরআই। কাউন্সিলের প্রথম দিনে পুরো সময় সেখান থেকে বিভিন্ন প্রকাশনা সংগ্রহ করেন তৃণমূল থেকে আসা নেতাকর্মীরা। তাদেরকে সারিবদ্ধ করাতে হিমশিমও খেতে হয় সেখানকার কর্মীদের। সিআরআইয়ের একজন কর্মী বলেন, স্টল থেকে আমরা বাংলাদশ আওয়ামী লীগ: ইতিহাস ও দলিল, ‘শেখ মুজিব: ট্রায়াম্ফ অ্যান্ড ট্রাজেডি’, ‘শেখ হাসিনা অন দ্য ইন্টারন্যাশনাল স্টেজ’, ‘সজীব ওয়াজেদ জয়: সমৃদ্ধ আগামীর প্রতিচ্ছবি’, গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’সহ বিভিন্ন বই বিক্রি করছি। এছাড়া জয়বাংলা ও নৌকাখচিত ব্যাজ, মগ, পোস্টার ও চাবির রিং এখান থেকে সংগ্রহ করা যাচ্ছে বলে জানান তিনি। সম্মেলন উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান প্রাঙ্গনে ছাত্রলীগ, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর এবং যুবলীগের ‘যুবজাগরণ’ পৃথক প্যাভিলিয়ন থেকে বিভিন্ন প্রকাশনা বিক্রি করতে দেখা যায়।

ব্রেকিং নিউজঃ