| |

ময়মনসিংহের সমস্যা যানজট ও অবৈধ স্থাপনা

আপডেটঃ 4:23 pm | October 27, 2016

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী : ময়মনসিংহের যানজট, রেললাইন সংলগ্ন অবৈধ স্থাপনা, অটো রিকশার স্ট্যান্ড অপসারন যত্রতত্র ফুটপাত দখল করে রাখা টং দোকান গুলিকে অপসারন ও অটো রিকশা এবং ব্যাটারী চালিত রিকশা নিয়ে বার বার হাজার বার লিখলেও প্রতিদিনই তা প্রাসঙ্গিক।
ময়মনসিংহ শহরের জন্য ২০ থেকে ২৫ ভাগ রাস্তার প্রয়োজন হলেও ময়মনসিংহে আছে মাত্র ৫ থেকে ৭ ভাগ। যানজটে পড়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকতে হয় গাড়িগুলোকে। এতে অপচয় হয় শ্রমশক্তি।
বুধবার বিকেলে ময়মনসিংহ মহানগরের সার্বিক সমস্যা নিয়ে জেলা প্রশাসক খলিলুর রহমানের সাথে নবগঠিত মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এহতেশামুল আলম মতবিনিময় করেন।
মতবিনিময়ে ময়মনসিংহের সৈন্দর্য রক্ষা, সন্ত্রাস ও মাদক, শানকিপাড়া এলাকার রেললাইন সংলগ্ন অবৈধ স্থাপনা, মুমিনুন্নিসা কলেজের সামনে থেকে স্ট্যান্ড, চরপাড়া মোড়ের স্ট্যান্ড, পাটগুদাম ব্রিজ সংলগ্ন অবৈধ স্থাপনা, নগরির টেম্পু ও অটো রিকশার স্ট্যান্ড, ফুটপাত দখল করে রাখা টং দোকান, জয়নুল অবেদিন পৌর পার্ক এলাকায় অস্থায়ী দোকান, অটো রিকশা এবং ব্যাটারী চালিত রিকশা চালানোর ফলে সৃষ্ট যানজটসহ বেশ কিছু সমস্যা নিয়ে মতবিনিময় করা হয়।
মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এহতেশামুল আলম বলেন, অটো রিকশা এবং ব্যাটারী চালিত রিকশার কারনে শহরের যানবাহনগুলো ঠিকমতো চলতে পারে না। ফলে সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট। ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থাকতে হয় যানজটে। জরুরি প্রয়োজনে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে দুর্ভোগে পড়তে হয় যাত্রীদের। গুটি কয়েকজনের জন্য নগরবাসীর দুর্ভোগ সহ্য করা যায় না। এই সবের বিরুদ্ধে প্রশাসন যেকোন ব্যাবস্থা গ্রহন করলে ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামীলীগ প্রশাসনকে সার্বিক সহযোগীতা করার আশ্বাস দেন।
ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক খলিলুর রহমান বলেন, সুন্দর মহানগর গড়তে হলে সকলের সহযোগীতা একান্ত প্রয়োজন। প্রতিদিন নতুন নতুন অটো রিকশা তৈরী ও বিক্রি হচ্ছে এটা বন্ধ না করতে পারলে অটো রিকশা নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব না। যানজটও নিয়ন্ত্রন হবে না।
তিনি বলেন, মহানগরে কোন অস্থায়ী দোকান রাখা হবে না। এব্যাপারে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। অবৈধ বাস, অটো রিকশা, টেম্পু স্ট্যান্ড গুলিকে সবার সহযোগীতা নিয়ে দ্রুততম সময়ের মধ্যে উচ্ছেদ করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন।
তিনি আরও বলেন, সন্ত্রাস ও মাদকের ব্যাপারে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ আছে যে কোন মুল্যে ইহাকে নির্মুল করতে হবে। এর জন্য আপনাদের সবার সহযোগীতা আমাদের একান্ত কাম্য।
এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ইউসুফ খান পাঠান, মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি প্রদীপ ভৌমিক ও আওয়ামীলীগ নেতা সিদ্দিকুর রহমান।

ব্রেকিং নিউজঃ