| |

গফরগাওয়ে চালককে হত্যা করে মোটর সাইকেল চুরির ঘটনায় ডিবি’র অভিযানে গ্রেফতার ২

আপডেটঃ 12:42 am | November 10, 2016

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী : ভাড়ায় মোটর সাইকেল চালক জেলার গফরগাঁওয়ের শফিকুল ইসলাম শিপন হত্যাকান্ডের অন্যতম দুই হোতাকে ডিবি পুলিশ গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো গফরগাওয়ের পাগলা এলাকার জাকির হোসেন ও রাসেল মিয়া। এ সময় তাদের কাছ থেকে নিহত শিপন খোয়া যাওয়া একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঢাকা ও গাজীপুরে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে ডিবি পুলিশ গতকাল সকালে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান। গ্রেফতারকৃতরা হত্যাকান্ডে তাদের নিজেদর জড়িত থাকার কথা স্বিকারসহ এবং জড়িত অন্যান্যদের নাম প্রকাশ করে বলে পুলিশ জানায়।
পুলিশ ও মামলা সুত্রে জানা গেছে, গফরগাওয়ের কান্দিপাড়াা গ্রামের মৃত রজব আলীর ছেলে শফিকুল ইসলাম শিপন পাগলা থেকে গফরগাও ও গফরগাও থেকে মশাখালী রোডসহ আশপাশ এলাকায় ভাড়ায় মোটর সাইকেল চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। গত ১ অক্টোবর সকালে বাড়ী থেকে বের হয়ে শিপন আর বাড়ী ফিরে না যাওয়ায় পরিবারের সদস্যরা বিভিন্ন জায়গায় খোজাখুজি করে পায়নি। পরদিন সকালে মশাখালী ইউনিয়নের দড়ি চারবাড়ীয়া গ্রামের শারভিটা নামক স্থানে অজ্ঞাত যুবকের লাশ পড়ে থাকার খবর পেয়ে নিহতের পরিবার শিপনের লাশ সনাক্ত করে।  নিহতের পরিবার শিপনের ব্যবহৃত মোটর সাইকেল ও তাঁর মোবাইল ফোন না পেয়ে এবং তাকে হত্যার বিষয়ে পাগলা থানায় খবর দেন। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল তৈরীসহ লাশের ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় নিহতের মা সাহেরা খাতুন অজ্ঞাত আসামীদের নামে পাগলা থানায় ৩০২/৩৭৯/৩৪ ধারায় মামলা নং ২ তাং ২/১০/১৬ দায়ের করেন। মোটর সাইকেল চুরিসহ চালককে হত্যার ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক ভীতি ও চাঞ্চল্য সৃষ্টি হওয়া এ মামলাটি পাগলা থানার পাশাপাশি পুলিশ সুপারের নির্দেশে ডিবি পুলিশ তদন্ত শুরু করে। পুলিশ সুপারের কঠোর নির্দেশনায় ডিবি পুলিশের ওসি ইমারত হোসেন গাজীর নেতৃত্বে এসআই পরিমল চন্দ্র দাস ও নিজামূল হক তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে দীর্ঘ সময় ধরে পর্যালোচনা করে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহ পোষণকারীদের মোবাইল ব্যবহার সনাক্ত করেন। পরে গত ৮ নভেম্বর ঢাকা ও গাজীপুরে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন। এ সময় তাদের কাছ থেকে শিপনের ব্যবহৃত ও লুট হওয়া মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতারদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, তারা সংঘবদ্ধ ডাকাতদলের সক্রিয় সদস্য। ৬/৭ জনের একটি দল নিহত শিপনের মোটর সাইকেল লুটে নিতে কৌশলে ভাড়ায় নিয়ে তাকে হত্যা করে মোটর সাইকেলটি লুটে নেয়। পুলিশ লুট হওয়া মোটর সাইকেল উদ্ধারসহ ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্যদের গ্রেফতার করতে প্রচেষ্ঠা অব্যাহত রেখেছে বলে ওসি ডিবি ইমারত হোসেন গাজী জানান।

ব্রেকিং নিউজঃ