| |

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস ভাংচুরের প্রতিবাদে দফায় দফায় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ সড়ক অবরোধ

আপডেটঃ 2:55 am | December 09, 2016

Ad

স্টাফ রিপোর্টার : ময়মনসিংহের ত্রিশালে প্রতিষ্ঠিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বহনকারী বাস ভাংচুরের ঘটনায় বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত দু দফায় সড়ক আবরোধ করেছে শিক্ষার্থীরা।
বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর নতুন বাজার কমার্স কলেজের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর দোষীদের গ্রেফতার দাবিতে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা প্রায় এক ঘণ্টা নগরীর নতুন বাজার মোড় সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ও জেলা ছাত্রলীগ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি শান্ত করে।
এরপর ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা দোষীদের গ্রেফতারে পুলিশকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেয়। তখন পুলিশ ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করায় অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয় শিক্ষার্থীরা।
দ্বিতীয়বারের মতো বাস ভাংচুরের ঘটনায় রাত ৭টা ৩০ মিনিটে  শহরের গাঙ্গিনারপাড় মোড়ে বিক্ষোভ আন্দোলনে নামে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।
কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফয়জুর রাজ্জাক অনিক বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস ভাংচুর করে শিক্ষার্থীদের আহত করা হবে,প্রশাসন কিছুই করতে পারবে না, এটি হবে না।
বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীগের এ নেতা বলেন, ২৪ ঘন্টার মধ্যে অপরাধীদের সনাক্ত করে আইনের আওতায় না আনা হলে তীব্র আন্দোলনে নাববে ছাত্রলীগ সহ সাধারন শিক্ষার্থীরা।
কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্র্তা (ওসি) মো: কামরুল ইসলাম বলেন, বিকালে এবং রাতে প্রায় ৩ ঘণ্টার মতো সড়ক অবরোধ ছিল। তবে এখন পরিস্থিতি শান্ত আছে। বাস ভাংচুরের ঘটনায় থানায় মামলা হবে এবং জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, নগরীর নতুন বাজার রেলক্রসিং এলাকায় শিক্ষার্থীদের বহনকারী প্রভাতী বাসটি প্রবেশের সময় এক রিকশা চালককে সাইড দিতে বলেন বাসের চালক। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রিকশা আরোহী দুই বখাটে বাস থামিয়ে চালককে গালাগাল করতে থাকে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে দলবেঁধে ওই বখাটেরা লাঠি ও রড দিয়ে বাসের গ্লাাস ভাংচুর করে। এ সময় পাঁচ শিক্ষার্থী আহত হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ