| |

এয়ার ফ্রেশনার যে কারণে ব্যবহার করা উচিৎ নয়

আপডেটঃ 2:52 am | January 20, 2017

Ad

আলোকিত ময়মনসিংহ ২৪ : ঘরে নিকোটিনের গন্ধ বা রান্নার গন্ধ হয়ে আছে বা ঘর স্যাঁতস্যাঁতে হয়ে আছে কোনো কারণে, এই দুর্গন্ধ দূর করতে বেশীরভাগ মানুষই এয়ার ফ্রেশনার স্প্রে করে দেন। কিন্তু এয়ার ফ্রেশনারের যথেচ্ছ ব্যবহার আমাদের স্বাস্থ্যের ওপর রাখতে পারে খারাপ প্রভাব।

এয়ার ফ্রেশনার আমরা কেন ব্যবহার করি? কারণ আমরা এয়ার ফ্রেশনারের সুগন্ধ দিয়ে অন্য কোনো দুর্গন্ধ ঢেকে দিই। এয়ার ফ্রেশনারের যে সুন্দর সুবাস, সেটা কি আসলে নিরাপদ?

এয়ার ফ্রেশনার, সেন্টেড ক্যান্ডল এবং কসমেটিকস- এসবের মাঝে সুগন্ধি হিসেবে থাকে রাসায়নিক। এসব রাসায়নিকের মাঝে থ্যালেট নামের ক্ষতিকর রাসায়নিকগুলোও থাকে, যেগুলো প্লাস্টিকের বোতল এবং বক্স তৈরিতে ব্যবহার করা হয়। এরা হরমোনের স্বাভাবিক কাজে বাধা দেয়।

এ কারণে আপনি যখন এমন একটি রুমে প্রবেশ করেন যেখানে এয়ার ফ্রেশনার দেওয়া আছে, আপনার নিঃশ্বাসের সাথে শরীরে প্রচুর পরিমাণে এসব রাসায়নিক প্রবেশ করে। “ফ্রেশ” বাতাসের বদলে আপনি আসলে “প্লাস্টিক” বাতাস নিচ্ছেন বুক ভরে।

কী করে বুঝবেন আপনার এয়ার ফ্রেশনারে ক্ষতিকর উপাদান আছে? বোঝার আসলে উপায় নেই, কারণ এয়ার ফ্রেশনারের বোতলে “ফ্র্যাগর‍্যান্স” নামে তালিকাভুক্ত করা আছে এই সুগন্ধিকে। এতে আসলে কী আছে তা জানা সম্ভব না সাধারণ একজন মানুষের জন্য।  

আপনি যদি ফ্রেশ বাতাস পেতে চান তাহলে ঘরের জানালা খুলে দিন। এটা সস্তা এবং সহজ, আর এর জন্য আপনাকে ক্ষতিকর রাসায়নিকের শিকার হতে হবে না।

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার

ব্রেকিং নিউজঃ