| |

ময়মনসিংহ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

আপডেটঃ 6:39 pm | January 26, 2017

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী, ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা সম্পন্ন হয়েছে। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি প্রতিষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষক এবং জিওসি ১৯ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার, ঘাটাইল এরিয়া মেজর জেনারেল সাজ্জাদুল হক, এএফডব্লিউসি, পিএসসি ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংগ্রহণকারী বিজয়ী ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।
বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) বিকেলে মাল্টি মারপাস মাঠে হাজার হাজার দর্শক হারিয়ে যায় শিক্ষার্থীদের মনোজ্ঞ ডিসপ্লে পরিবেশনায়। এতে বাংলাদেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য, ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ, জঙ্গিবাদ বিরোধী সচেতনতা, ক্রিকেট সাফল্য, প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক বই উৎসব উদ্বোধনসহ বর্তমান সরকারের গৃহীত উন্নয়ন কর্মকা- তুলে ধরা হয়।
অনুষ্ঠানের শুরুতে ময়মনসিংহ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের প্যারেড দল প্রধান অতিথিকে সালাম দেন। এরপর মশাল নিয়ে মাঠ প্রদক্ষিণ করে। এরপর শুরু হয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতা। মাঠে চলে যেমন খুশি তেমন সাঁজ প্রতিযোগিতা।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মিসেস আফসানা সাজ্জাদ। আরও উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও কমান্ডার, ৭৭ পদাতিক ব্রিগেড, মোমেনশাহী সেনানিবাস ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ মঈন খান, এলএসসি, এনডিসি, পিএসসি, সেনা কর্মকর্তা, বেসামরিক কর্মকর্তা ও অভিভাবকবৃন্দ এবং প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ লেঃ কর্নেল মোঃ শহীদুল হাসান, এসইউপি।
৩ দিন ব্যাপী ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয় নজরুল হাউস এবং রানার আপ হয় জয়নুল হাউজ। বিজয়ী হাউজ এর মাঝে ট্রফি বিতরণ করেন প্রধান অতিথি। স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ। আরও বক্তব্য রাখেন পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি।
এর আগে ২৩ জানুয়ারি সকাল ৯ টায় প্রতিযোগিতার উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যক্ষ লেঃ কর্নেল মোঃ শহীদুল হাসান, এসইউপি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মিসেস সৈয়দা রোকসানা শারমীন। সাদা পায়রা উড়িঁয়ে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্ভোধন ঘোষণা করেন প্রধান অতিথি।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করুন এই লক্ষ্যে শিক্ষার পাশাপাশি ক্রীড়াসহ অন্যান্য সহপাঠ্যক্রম কার্যাবলী কার্যকর ভুমিকা রাখে। শিক্ষার্থীদের সুশিক্ষায় গড়ে তোলার ক্ষেত্রে শিক্ষক এবং অভিভাবকদের ভুমিকা অপরিসীম”। তিনি ০৩ দিন ব্যাপী আয়োজিত ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী ও সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান। অতঃপর বেলুন উড়িয়ে সমাপনী ঘোষণা করা হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ