| |

ঝিনাইগাতীতে ইউরিয়া সারের কৃত্রিম সংকট দেখা দিয়েছে বোরো চাষীরা পড়েছে বিপাকে!

আপডেটঃ 10:09 pm | February 18, 2017

Ad

মো. জয়নাল আবদিন, শেরপুর ঝিনাইগাতী প্রতিনিধি:শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ইউরিয়া সারের কৃত্রিম সংকট দেখা দিয়েছে। বিগত বছরের চেয়ে এবছর ঝিনাইগাতী উপজেলায় লক্ষমাত্রার চেয়ে বেশী জমিতে বোরো চাষাবাদ করা হয়েছে। যে কারণে সারের চাহিদা গত বছরের চেয়ে বেশী। চলতি বোরো মৌসুমের প্রায় সব ফসলি জমিতেই এখন ইউরিয়া সার প্রয়োগ করার উপযুক্ত সময় হয়ে এসেছে। আর ঠিক এই সময়ে আকস্মিক ভাবে ইউরিয়া সারের সংকট দেখা দিয়েছে। কৃষকের চাহিদা অনুযায়ী ডিলাররা সার দিতে পারছে না। যে কারণে কৃষকরা এখন হতাশার মধ্যে পড়েছেন। এব্যাপারে ঝিনাইগাতী উপজেলার বিসিআইসি’র সার ডিলার এ্যাপোলোর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে জানান, পরিবহন সংকটের কারণে পর্যান্ত পরিমাণ ইউরিয়া সার সরবরাহ করা যাচ্ছে না। এ কারণেই কৃষকদের চাহিদা অনুযায়ী সার ডিলাররা যোগান দিতে পারছে না। অত্র উপজেলার বিসিআইসি’র ১১জন প্রধান ডিলার রয়েছে এবং ৭টি ইউনিয়ন পর্যায়ে ০৯জন করে ৬৩জন খুচরা সার বিক্রেতা রয়েছে। উপজেলা পর্যায়ে বিসিআইসি’র প্রধান ডিলারদের কাছ থেকে সংগ্রহ করে সাব ডিলাররা বিক্রি করে। কিন্তু প্রয়োজনের তুলনায় সাব-ডিলাররা বিসিআইসি’র ডিলারদের কাছ থেকে চাহিদা অনুযায়ী সার পাচ্ছে না। যে কারণে বর্তমানে সাব-ডিলারের কাছে সার নেই বললেই চলে। সাব-ডিলাররা জানান, উপজেলা পর্যায়ের ডিলাররা আমাদেরকে পর্যাপ্ত পরিমাণ সার না দেওয়ার কারণে আমাদের দোকানে এখন সার সংকট দেখা দিয়েছে। অত্র উপজেলার অনেকে কৃষক জানান, ডিলাররা তাদের চাহিদা অনুযায়ী সার দিতে পারছেনা। অথচ এখন বোরো ফসলি জমিতে ইউরিয়া প্রয়োগের উপযুক্ত সময় চলছে। সঠিক সময়ে ইউরিয়া সার প্রয়োগ করতে না পারলে বোরো ফসলের উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ব্যাহত হতে পারে। তাই অবিলম্বে উর্ধ্বতন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নজর দেওয়া জরুরী বলে অত্র এলাকার কৃষকদের দাবী।

এব্যাপারে উপজেলা কৃষি বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে জানান, ইউরিয়া সারের উৎপাদন ও পরিবহন সংকটের কারণে কৃষকদের কিছুটা সার প্রাপ্তীর বিঘœতা সৃষ্টি হয়েছে। তবে সারের তেমন সংকট নেই। যে সমস্ত সংকটের কারণে সার প্রাপ্তীর বিঘিœর সৃষ্টি হয়েছে তা অবিলম্বেই নিরশন হবে বলে জানান ।

ব্রেকিং নিউজঃ