| |

চা পাতির পরিবর্তে বিষ, চা পান করে ভাইবোনের মৃত্যু

আপডেটঃ 8:12 pm | March 12, 2017

Ad

স্টাফ রিপোর্টার : চা পাতির পরিবর্তে ভুলক্রমে বিষ মেশানো চা পান করে ঠাকুরগাঁওয়ে ২ শিশুর (ভাই-বোন) মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ওই দুই শিশুর মাসহ ৪ জনকে অসুস্থ অবস্থায় ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিবার (১২ মার্চ) দুপুর ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

মৃত দুই শিশু হলো জেলার সদর উপজেলা রায়পুর ইউনিয়নের হরিন্দা গ্রামের মইনুলের দুই শিশু সন্তান সোহান (৭) ও সোহানা (২)। হাসপাতালে ভর্তি অসুস্থরা হলেন-মৃত দুই শিশুর মা সরুফা (৪০), জমিলা (৫০) ও সাবিনা (২৫)

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, জেলার সদর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের হরিন্দা গ্রামের আলাউদ্দিনের স্ত্রী জামেলার (৫০) বাড়িতে তার নাতনি সাবিনা দুই শিশু সন্তান সোহান ও সোহানাকে নিয়ে বেড়াতে যান। তাদের জন্য চা বানানোর সময় চায়ে পাতি না দিয়ে ভুলক্রমে দানাদার বিষ দিয়ে চা তৈরি করেন জামেলা। সেই চা পরিবারের ৬ জন (মৃত ও আহতরা) পান করেন।

এ সময় বিষক্রিয়ায় শিশু সোহান (৭) ঘটনাস্থলেই মারা যায় এবং অসুস্থ হয় আরও ৫ জন। পারিবারের লোকজন অসুস্থদের উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করার পর সোহানা (২) মারা যায়।

সূত্রটি জানায়, জমিলা এবং সাবিনা সম্পর্কে দাদী-নাতনি। সাবিনা একইগ্রামের মইনুলের স্ত্রী। এই ঘটনায় আহত অপর দুইজন সাবিনার চাচী সরুফা ও তার শিশু কন্যা সাদিয়া (৫)।

ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক রফিকুল হক জানান, সবাইকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি করে নেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম জানান, আমার ইউনিয়নে হরিন্দা এলাকায় এক বয়স্ক মহিলা চা তৈরি করার সময় ভুলক্রমে বিষ দেয়। এ সময় এক শিশু মারা যায়। অসুস্থ আরও ৫ জনকে আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে আরেক শিশু মারা যায়।

ঠাকুরগাঁও থানার ওসি মশিউর রহমান জানান, পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়েছে। শত্রুতার জেরে এমনটি হয়েছে কিনা তা-ও খতিয়ে দেখা হবে।

ব্রেকিং নিউজঃ