| |

বাজছে জাতীয় সঙ্গীত, কাঁদছেন মাবিয়া

ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৬

জেতার পর বেশ উৎফুল্ল ছিলেন। তবে পদক গ্রহণ করার সময় আবেগ সামলাতে পারলেন না। বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত বাজতে শুরু করলেই দেখা যায় ভিন্ন চিত্র। ফুপিয়ে ফুপিয়ে কাঁদতে শুরু করেন এস এ গেমসে এবারের আসরে বাংলাদেশের হয়ে প্রথম স্বর্ন জেতা মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। গলায় স্বর্ণ পদক। স্যালুট ভঙ্গিতে দাঁড়িয়ে সবার উপরে দাঁড়িয়ে। বেজে চলল জাতীয় সঙ্গীত, ‘আমার সোনার বাংলা.....’। জাতীয় সংগীতের মমত্ববোধ থেকে নিজেকে সামলাতে পারেননি মাবিয়া। যতক্ষণ বেজেছে জাতীয় সঙ্গীত, কেঁদেছেন তিনি। তার এই কান্না দেখে আবেগ সামলাতে পারেনি অনেকেই। দেশের প্রতি তার এই ভালোবাসা দেখে অনেকেই স্যালুট জানিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। রোববার মেয়েদের ভারোত্তোলনে ৬৩ কেজি ওজন শ্রেণিতে বাংলাদেশের হয়ে প্রথম স্বর্ণ জেতেন মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। এরপর অবশ্য সাঁতারেও মাহফুজার হাত ধরে এসেছে দ্বিতীয়...

মনের কষ্টে যেসব কথা বলে সবাইকে কাঁদালেন মুস্তাফিজ

ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০১৬

মুস্তাফিজুর রহমানকে ডাক দেয়া পাকিস্তানের সুপার লিগে খেলার জন্য। এই খবরটি শুনে আনন্দে আত্মহারা হয় মুস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু এবার এই ইস্যুতেই নানা কথা বলে সবাইকে কাঁদিয়ে দিলেন সেই মুস্তাফিজুর রহমানই। তামিমদের সাথে পিএসএল খেলতে না যেতে পারার কষ্টে মুখ খুলেন মুস্তাফিজ। খুবই করুণ ছিল মুস্তাফিজের কন্ঠস্বর। তার কথায় চোখে পানি আসতে পারে আপনারও। মুস্তাফিজ বলেছেন, আমার বড় বড় স্বপ্ন ছিল বিদেশের মাটিতে খেলার। সিনিয়রদের সাথে খেলার জন্য আমার অনেক ইচ্ছা ছিল। মুস্তাফিজ বলেন, যখন জানতে পারলাম আমি ক্রিস গেইলের দলে খেলব। তখন আরো আনন্দিত হই। কিন্তু এখন সবকিছু শেষ হয়ে গেল। আমি এই আসরের আগে সুস্থই হতে পারলাম না। মুস্তাফিজ আক্ষেপ করে বলেন, আরব আমিরাতে আমি খেলতে পারলে আমার আসল বলগুলো ওখানে করতে পারতাম। তিনি আরো আক্ষেপ করে আরো বলেন, সাকিব ভাই, তামিম ভাই ও মুশফিক ভাই...

ব্রেকিং নিউজঃ