| |

শেরপুরের ঝিনাইগাতী বাজারে ড্র্যানেজ ব্যবস্থা ভাল না থাকায় ড্যানে জমে থাকা পঁচা পানির দুর্গন্ধে অতিষ্ট ক্রেতা-বিক্রেতা

আপডেটঃ 1:27 am | March 27, 2017

Ad

মোঃ আবু রায়হান, ঝিনাইগাতী প্রতিনিধি: শেরপুরের ঝিনাইগাতী বাজারে ড্র্যানেজ ব্যবস্থা ভাল না থাকায় এবং পরিষ্কার করার অভাবে ড্রেনে জমে থাকা ময়লাযুক্ত দুর্গন্ধময় পানির দুর্গন্ধে ক্রেতা-বিক্রেতা ও স্থানীয় দোকানদারসহ সকলেই ভোক্তভোগী।

]উল্লেখ্য, ঝিনাইগাতী বাজারটি শেরপুর জেলার মধ্যে রাজস্ব আয়ের অন্যতম একটি বাজার। এই বাজারের ময়লাযুক্ত পানি পরিষ্কার করার ভাল ড্র্যানেজ ব্যবস্খা নেয়। প্রকাশ থাকে যে, ২যুগ পূর্বে বাজার সংলগ্ন সওজ’য়ের রাস্তার পানি নিষ্কাশনের জন্য রাস্তা উভয় পার্শ্বে ২টি সরু ড্রেন নির্মাণ করেছিল।

উক্ত সরু ড্রেন ২টি দিয়ে বৃহৎ বাজারের দুর্গন্ধযুক্ত পানি নিষ্কাশনের জন্য নির্ভর করা হয়েছে। উক্ত সরু ড্রেন ২টি দিয়ে বাজারের সম্পূর্ণ পানি নিষ্কাশন সম্ভব না। তার পরেও উক্ত ড্রেন ২টি পরিষ্কার করার দ্বায়-দায়িত্ব কারোর নেই।

যে কারণে উক্ত ড্রেন ২টিতে পঁচা আবর্জনা, দূর্গন্ধময় পানি জমে থাকার কারণে উক্ত বাজারের স্থানীয় দোকানদার, ক্রেতা-বিক্রেতাসহ সর্বস্তরের লোকের দূর্ভোড়- পোহাতে হচ্ছে।

দীর্ঘদিন থেকে ড্যানগুলি পরিষ্কার না করায় বিভিন্ন ধরণের ময়লাযুক্ত পানি পঁেচ দূর্গন্ধের কারণে পথচারী ক্রেতা-বিক্রেতা ও স্থায়ী দোকানীরা ময়লা পঁচা তীব্র দূষণযুক্ত দূর্গন্ধে অতিষ্ট হয়েগেছে। ওই সমস্ত ড্যানের ময়লা পরিষ্কার না করা হলে ড্যানের আশ-পাশের দোকানীসহ সাধারণ মানুষ দূর্গন্ধের কারণে নানা রোগে আক্রান্ত হতে পারে।
এই ঝিনাইগাতী সদর বাজাটি প্রতি বৎসর রাজস্ব আসে প্রায় দেড় কোটি টাকা। অথচ নিয়ম অনুযায়ী বাজারে রাজস্ব আয়ের টাকা বাজার সংস্কার, ড্র্যানেজ ব্যবস্থা, পয় নিষ্কাশনসহ উন্নয়ন কর্মকান্ডে ৬৫% ব্যয় করার কথা।

কিন্তু এখানে কাগজে-কলমে কিছু উন্নয়ন কাজ দেখানো হয়। বাস্তবে তেমন কোন উন্নয়ন কাজ বাজারে লক্ষ্য করা যায় না।উক্ত বাজার আয়ের রাজস্ব টাকা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও কর্মকর্তাদের মাধ্যমে সরকারী নিয়ম অনুযায়ী সঠিক ভাবে বাজারের রাজস্বের টাকা বাজারের উন্নয়ন কাজে ব্যয় করা হতো তাহলে বাজারের এমন বেহাল দশা হতো না।

তাই অত্র ঝিনাইগাতী ঐতিহাসিক সদর বাজারটি ক্রেতা-বিক্রেতা ও জনসাধারণের স্বার্থে অবিলম্বে বাজারের ও সওজ এর রাস্তার উভয় পার্শ্বে ড্র্যানেজ ব্যবস্থা সংস্কারের মাধ্যমে আশু সমস্যা সমাধান করবেন এমন প্রত্যাশা অত্র বাজারের ব্যবসায়ী মহলসহ সর্বসাধারণের।

ব্রেকিং নিউজঃ