| |

মোস্তাফিজকে নিয়ে ভীষণ দুশ্চিন্তায় হাথুরু

আপডেটঃ 12:07 pm | March 31, 2017

Ad

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম দুই ওয়ানডেতে আসল কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুরের দেখা পাওয়া যায়নি।  দুই ম্যাচেই পরিণত হয়েছিলেন লঙ্কান ব্যাটসম্যানদের সহজ টার্গেটে।  দ্বিতীয় ওয়ানডেতে তো ওভারপ্রতি সাতের বেশি রান দিয়েছেন।  ‘দ্য ফিজ’ এর হঠাৎ এমন ছন্দপতনে চিন্তার ভাঁজ টাইগার কোচ চণ্ডিকা হাথুরুসিংহের কপালে।  বোলিং গুরু কিংবদন্তি কোর্টনি ওয়ালশও সেই দলে।  যে রহস্য পেসারকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকতেন প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানরা, এবার খোদ তাকে নিয়েই দুর্ভাবনায় টাইগার দুই কোচ! তাই বৃহস্পতিবার মোস্তাফিজকে আলাদা করে বোলিং অনুশীলন করিয়েছেন তারা।

২০১৫ সালে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজের পর প্রায় এক বছর ওয়ানডে খেলেননি বিস্ময় বোলার মোস্তাফিজ।  ইনজুরি আর আত্মবিশ্বাসের অভাবে।  গত বছরের ডিসেম্বরে নিউজিল্যান্ড সফর দিয়ে ওয়ানডে দলে ফেরেন।  কিন্তু কিউইদের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতেই অচেনা মোস্তাফিজ।  ১০ ওভার বল করে দিয়েছিলেন ৬২ রান।  বোলিং ইকোনমি ৬.২০।  ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ওটাই ছিল তার ওভারপ্রতি ছয়ের বেশি রান দেয়ার প্রথম নজির।

এরপর শ্রীলঙ্কা সিরিজের প্রথম ম্যাচে মোস্তাফিজের ৮.১ ওভারে ৬.৮৫ গড়ে লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা নিয়েছিলেন ৫৪ রান।  দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৮ ওভারেই তিনি দিয়েছিলেন ৬০ রান।  ওভারপ্রতি ৭.৫০ গড়ে।  বাউন্ডারি হজম করেছিলেন ৮টি।  টাইগার বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ।  বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত ম্যাচে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বাজে দিনই কাটিয়েছেন ২১ বছরের মোস্তাফিজ।

বৃহস্পতিবার টাইগাররা ঐচ্ছিক অনুশীলন করেছে।  মাশরাফি-সাকিবরা অনুশীলনে আসেননি।  কিন্তু মোস্তাফিজ কোন ছাড় পাননি।  ঠিকই ঘাম ঝরাতে হয়েছে বোলিংয়ে।  নিজেকে ঝালিয়ে নিয়েছেন ট্রেডমার্ক কাটার আর স্লোয়ার বল করে।  হাথুরু-ওয়ালশ, দুই অভিজ্ঞ শিক্ষক নিবিড়ভাবে নেটে পর্যবেক্ষণ করেছেন তার বোলিং।  তাছাড়া সিরিজ জিততে শেষ ম্যাচে জয় চাই বাংলাদেশের।  আর সেজন্য মোস্তাফিজের পুরনো রূপে ফেরার বিকল্প নেই।  ১ এপ্রিল যে ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের সম্ভাবনার ম্যাচ কলম্বোতে!

ব্রেকিং নিউজঃ