| |

২৫ মার্চ বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতা ঘোষনার ওয়ারলেস বার্তা

আপডেটঃ 2:24 am | April 02, 2017

Ad

প্রদিপ ভৌমিক ॥ ২৫ মার্চ পাকহানাদার বাহিনীর হাতে গ্রেফতারের পুর্ব মুহুর্তে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষনা দেন। তার সেই ঘোষনাটি ওয়ারলেসের মাধ্যমে বিভিন্ন থানা, জেলা সহ বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে লিফলেট আকারে ছেপে প্রচার করা হয়। ২৬ মার্চ চট্রগামে যে তার বার্তাটি প্রচার হয় তা নিন্মরূপ:

Ò This may be my last message, from to day Bangladesh is Independent . i call upon the people of Bangladesh wherever you might be and with whatever you have, to resist the army of occupation to the last, your fight must go on until the last soldier of the Pakistan occupation army is expelled from the soil of Bangladesh of final victory is acieved

“সম্প্রতি বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতা ঘোষনার একটি তার বার্তার কপি পাওয়া গেছে। ওয়ারলেসের মাধ্যমে প্রাপ্ত সেই তার বার্তাটির কপি মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ের পাবনা জেলার শাহজাদপুরের ওসি জনাব আব্দুল হামিদ ২৬মার্চ সকাল ৮টায় ওয়ারলেসের মাধ্যমে প্রাপ্ত যে কপিটি পান তা নিন্মরূপ :

From Dacca

to peoples of Bangladesh and all of the world.

Pakistan arms forces suddenly attacked EPR of Peelkhana and Police forces at Rajarbag from oo hours of 26th march killing laks of unarmed People fierce battle going on with EPR and police forces in the street of Dacca and people ar fighting gallantly for the freedom of Bangladesh . Every section of people of Bangladesh asked attack enemy force at any cost of Bangladesh . May Allah bless you and help in your struggle of freedom .

Joy Bangla

Muzib

মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ের শাহজাদপুরের ওসি মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহন করেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতা লাভের পর তিনি এসপি পদে উন্নীত হয়ে ছিলেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যের ব্যাপার স্বাধীন বাংলাদেশে মৃত্যুর পুর্ব পর্যন্ত এই বীরমুক্তিযোদ্ধা পেনশন না পেয়ে মৃত্যু বরন করেন। বর্তমানে মরহুম বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ এর সংগ্রহিত তার বার্তাটি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে মরহুমের স্ত্রী জীবন নেছা হামিদ ও তার পুত্র ইসতিয়াক আহম্মেদ “ মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ গবেষনা ইনস্ট্রিটিউটের যাদুঘরে প্রদান করেছেন। চট্রগাম ও শাহজাদপুরের প্রাপ্ত  ওয়ারলেস বার্তাটির কিছুটা অমিল থাকলেও মুল বক্তব্য ২টি বার্তাই এক। এমনও হতে পারে বিদেশের জন্য প্রথমে ইংরেজিতে ও পরে বাংলায় তার বার্তাটি পাঠানো হয়ে ছিল। যিনি ওয়ারলেসে কোড সিগন্যাল পাঠিয়ে ছিলেন অনুবাদগত কারনে তা কিছুটা দুই রকম হয়েছে বলে প্রতিয়মান হয়। মিল অমিল যাই থাকুক এটা নি:সন্দেহে প্রমানিত ২৫মার্চ গ্রেফতারের আগে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা সংক্রান্ত একটি বার্তা ওয়ারলেসে প্রেরন করে ছিলেন।

 

ব্রেকিং নিউজঃ