| |

নান্দাইলে মুক্তিযোদ্ধার পরিবারকে বসতভূমিতে বেদখল ও মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

আপডেটঃ 9:03 pm | September 26, 2017

Ad

শামছুজ্জামান বাবুল, নান্দাইল প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের নান্দাইলের দক্ষিণ চারিআনিপাড়া গ্রামের প্রয়াত এক মুক্তিযোদ্ধার পরিবারকে নিজ বসতভূমিতে বেদখল ও বিভিন্ন মিথ্যা মামলা দিয়ে তার ভূমিদস্যু চাচাত ভাইদের হয়রানির অভিযোগে ডাকা সংবাদ সম্মেলনটি অবশেষে অসহায় মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের আহাজারিতে পরিণত হয়েছে।

 

মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে নান্দাইল উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলনে ভূক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা ছাড়াও নান্দাইল মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কর্মকর্তা, সদস্যবৃন্দ ও চারিআনিপাড়া গ্রামের এলাকাবাসি উপস্থিত ছিলেন।

 

ভূক্তভোগী প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদের মেয়ে মোছাঃ নাদিরা বেগম সংবাদ সম্মেলনে এক লিখিত বক্তব্যে জানান, তার বাবা প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ ও মৃত আব্দুল জব্বার সহোদর ভাই।

 

পৌর এলাকার দক্ষিণ চারিআনিপাড়া গ্রামে পৈত্রিক ত্রিশ শতক ভূমিতে বসবাস করতেন। সেই সূত্রে প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদের সন্তান হিসেবে আমরা ১৫ শতক জমির মালিক।

 

কিন্তু বাবা (বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ) মৃত্যুবরণ করার পর আমার চাচাত ভাই অহিদ সরকার ও তার ছোট ভাই আহেদ সরকার (মৃত আব্দুল জব্বার ওরফে জবান ভেন্ডারের সন্তানরা) আমাদের পৈত্রিক বসতভিটা সেইসাথে বাড়ির পাশে থাকা আরও ১৩ শতক (সর্ব মোট ২৮ শতক)জমি দখল করে আমাদের বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়।

 

পরবর্তীতে এলাকাবাসির কাছে এ বিষয়ে জানালে, স্থানীয় পৌর কমিশনারসহ এলাকার মুরুব্বিরা বেশ কয়েক দফা সালিশ-দরবার করেও অহিদ সরকার ও তার ছোট ভাই আহেদ সরকারের অসহযোগিতায় ব্যর্থ হন।

 

দরবার-সালিশ ডাকায় রাগে-ক্ষোভে অহিদ সরকার ও তার ছোট ভাই আহেদ সরকার আমাদের হুমকী-দমকী দিয়েও ক্ষান্ত হয়নি, আমি ও আমার পরিবার এমনকি সালিশ-দরবারে অংশ নেয়া ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে আমাদের বসতভূমি ছাড়া করার পাশাপাশি মামলা দিয়ে হয়রানি করে যাচ্ছে।

 

মিথ্যা মামলা থেকে মুক্তি সেইসাথে নিজ বসতভূমি না পেলে কোথায় থাকার জায়গা হবে আমাদের! এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে আমাদের অসহায় পরিবারটির আত্বহত্যা করা ছাড়া আর কোন পথ থাকবে না বলেই আহাজারি করেন নাদিরা, তার সহোদর ছোট ভাই নাদিম হায়দার ও বোন সমলা বেগম।

 

এ সময় নাদিরা আরও বলেন ভূমিদস্যু ওই অহিদ সরকার ও তার ছোট ভাই আহেদ সরকারের অত্যাচারে আমার চাচা বীর মুক্তিযোদ্ধা দয়াল নূরুল ইসলাম সরকার হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ,আরও এক চাচা বীর মুক্তিযোদ্ধা হাসিম উদ্দিন সরকার আত্যাচারিত হয়ে মারা যান। হাসিম উদ্দিন সরকারের সমস্ত সম্পতি ওই ভূমিদস্যুরা কৌশলে কব্জা করে স্ত্রী ও সন্তানদের পথে বসিয়েছে। আমরা এদের হাত থেকে বাঁচার আকুতি জানাচ্ছি।

 

এ সংবাদ সম্মেলনে নান্দাইল মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মাজহারুল হক ফকির, মুক্তিযোদ্ধা হাছেন আলী, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গফুর, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাশিদ মাষ্টারসহ অত্যাচারিত ভূক্তভোগী ৩টি পরিবারের সদস্যবৃন্দ, এলাকাবাসি, বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ব্রেকিং নিউজঃ