| |

ভালুকায় অবৈধ করাত কলে উজার হচ্ছে সরকারী বন

আপডেটঃ 12:45 am | April 28, 2019

Ad

ভালুকা উপজেলায় সরকারী বনাঞ্চলে অবাদে স্থাপন হওয়া করাত কলে দিন রাত কাঠ চিড়াইয়ের ফলে বন ভূমি উজার হয়ে প্রাকৃতিক পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে । অপর দিকে এক শ্রেণীর ভূমি দস্যুরা বনের গাছ কেটে ওইসব বনভূমি কৌশলে জবর দখলে নিচ্ছে আর তাতে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে ভূয়া দলিলপত্র তৈরী করে বিভিন্ন শিল্পপতিদের কাছে বিক্রি করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ কর্তৃপক্ষের নজর এরিয়ে এসব করাতকল স্থাপন করে বছরের পর বছর সরকারী বনের সাল গজারী গাছ কেটে বন ধ্বংস করে চলেছে করাতকল মালিকরা। ২৪ এপ্রিল বুধবার দুপুরে ভালুকা উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নের পাড়াগাঁও বড়চালা গ্রামে দেখাযায় ভালুকা রেঞ্জের কাদিগড় বিটের অন্তরগত পাড়াগাঁও মৌজার ৩০৯ দাগে বন বিজ্ঞপ্তিত জমিতে জনৈক ছামাদ বেপারী একটি করাত কল (সমিল) স্থাপন করে দেদারসে কাঠ চিড়াই করছেন। মিলের সাথে অসংখ্য কাটা গজারী গাছ পরে রয়েছে।

বন বিভাগ সূত্রে জানাযায় বন আইনে বন ভূমির ১০ কিলোমিটারের মধ্যে করাতকল স্থাপন সম্পুর্ণ নিষিদ্ধ হলেও হবিরবাড়ী জামিরদিয়া, কাচিনা, মল্লিকবাড়ী, বাটাজোর বাজার, ডাকাতিয়া, আঙ্গারগাড়া, ভরাডোবা, পনাশাইল, উথুরা, কৈয়াদী, চামিয়াদী এলকায় প্রায় শতাধিক লাইসেন্স বিহিন করাতকল রয়েছে যা বন এলাকায় সম্পুর্ণ বেআইনি ভাবে স্থাপিত। এসব এলাকার করাত কল স্থাপনের বিষয়ে বন বিভাগ অবগত না থাকার কথা জানান।

ব্রেকিং নিউজঃ