| |

হেফাজত কে বলছি

আপডেটঃ 9:19 pm | April 07, 2021

Ad

শাহীন রাকিব : ইসলামী শাসনতন্ত্র কায়েমের জন্য ২০১০ সালের ১৯ জানুয়ারীতে জন্ম নিয়েই রাস্ট্র ক্ষমতায় যাবার আশায় মসজিদ ও মাদ্রাসা ভিত্তিক রাজনীতির পথ চলা শুরু। রাজনীতির পথ পরিক্রমায় বেছে নিয়েছ “ইসলামী মহাসম্মেলনের” নামে ধর্মের পাশাপাশি রাজনৈতিক বয়ান।এর বাইরে রাস্ট্রনীতি, সামাজিক নীতি,আন্তর্জাতিক নীতি নিয়ে কোন লক্ষস্থির তোমরা আজ অব্দি দেখাতে পারোনি।দলীয় নেতা কর্মীদের পরকালের রাস্তা আর বেহেস্তের বিধিমালা দেখিয়ে যাচ্ছ। যাকগে তোমাদের রাজনীতি তোমাদের কাছে। তোমাদের রাজনীতি সফল হোক, তোমরা কামিয়াব হও সেই শুভ কামনা থাকছে । তোমরা রাজনীতি কর আমাদের আপত্তি নেই। ধর্ম ভিত্তিক রাজনীতি যেহেতু কোন সরকার আজ অব্দি নিষিদ্ধ করেনি তাই তোমরা নিয়মতান্ত্রিক ভাবে, শান্তিপূর্ণ ভাবে রাজনীতি করতেই পার।তোমরা স্বাভাবিক রাজনীতি দাও দেশের জনগনকে, তাদের আস্থা কুড়াও। তার পর যে স্বপ্ন দেখছ অহর্নিশি সেই স্বপ্ন পুরন হোক। ক্ষমতার মসনদে বস। আমরা তোমাদের স্যালুট জানাবো। কিন্তু তা না করে তোমরা কোন পথে হাটছ??তোমরা নিজেরা একের জায়গায় চারটি এমনকি দশটি বিয়ে করতে পার। এটা তোমাদের একান্ত বিষয়। লুইচ্চামি কর,বদমায়েশি কর সেটাও তোমাদের একান্ত নিজস্ব বিষয়। কিন্তু লুইচ্চামি করতে গিয়ে ধরা পড়ে নিজেকে Defend করতে গিয়ে দেশের প্রচলিত আইন আছে তা দিয়ে Defend কর। অথচ তোমরা দেশের প্রচলিত আইনের আশ্রয় না নিজেকে বাচাতে ইসলাম ধর্ম কে ব্যবহার করছ। এটা কেন? Islam is not your personal property? ইসলাম ধর্ম নাযিল হয়েছে সমস্ত বিশ্ব বাসীর জন্য। পবিত্র কোরআন নাজেল হয়ে মানব কুলের জন্য। শান্তির জন্য, ভালবাসার জন্য সুন্দর সামাজিক সমাজের জন্য স্পষ্ট দিক নির্দেশনা দেয়া আছে পবিত্র কোরআন শরীফে। হিংসা, বিবাদ, রক্তপাত থেকে দূরে থাকার বিধান আছে ইসলাম ধর্মের প্রতিটি দিক নির্দেশনায়। লুইচ্চামি, ব্যভিচার,জেনা,নেশা সহ সকল পর্যায়ের পাপাচার থেকে দূরে থাকার স্পষ্ট নির্দেশনা আছে পবিত্র কোরআন ও হাদিসে। সেইক্ষেত্রে====তোমরা ঘরে নিজের ধর্ম স্ত্রী সন্তান রেখে দামী গাড়ী হাকিয়ে দামী রিসোর্টে অবৈধ যৌনাচার, ব্যভিচার করতে যাবে? যাও সেখানে। একবার কেন? হাজার বার যাও বারবার যাও। সেখানে গিয়ে রিসোর্টের রেজিস্টারে নিজের আসল বউয়ের নাম লিখে অন্যের বউকে নিয়ে যাবে আর ধরা খেলে বলবে নিজের বিয়ে করা ২য় স্ত্রী!! মহিলার নামটা পর্জন্ত সঠিক ভাবে বলতে পার না? নিজেদের লুইচ্চামি কে defend করতে গিয়ে নবী, পয়গম্বর দের উদাহরন টেনে নিয়ে আসবে আর আমরা বিশ্বের সাধারন ইসলাম ধর্মাবলম্বী মানুষ সেটা মেনে নিব তা কি করে আশা কর? চোর চুরি করে ধরা খেলে তাকে গলা নামিয়েই কথা বলতে হয়। তোমাদের এক শারীরিক প্রতিবন্ধী ওয়াজ কারী (বাওন হুজুর) এই বিষয়ে বারবার নবী করিম (সাঃ) এর নাম বারবার বলছে। এই বেয়াদব বাওনের কাছে প্রশ্ন একজন সামান্য মামুনুলের কুকর্ম ঢাকতে গিয়ে তাকে প্রিয় নবী করিম( সাঃ) এর সাথে তুলনা করার এই দুঃসাহস পেল কোথা থেকে? সামান্য একজন মানুষকে নবীজির সাথে তুলনা করার অপরাধে এই প্রতিবন্ধী মওলানা কে প্রচলিত আইনের আওতায় আনা উচিৎ। ইসলাম ধর্মে একের অধিক বিয়ের বিধিবিধান দিয়ে দিয়েছে। ইসলাম ধর্মে কখনোই বলে নাই ১ম স্ত্রীর অনুমতি ব্যাতিরেকে আরেকটি বিয়ে করতে। ইসলাম ধর্ম এ কথা বলে নাই যে মিথ্যা স্ত্রী পরিচয় দিয়ে নিজের ঘরের বাইরে গিয়ে ব্যভিচারে লিপ্ত হতে। বাওন মওলানা বলছে যুদ্ধের ময়দানে বিয়ের কথা, স্ত্রী সাথে মিলনের কথা। এই দেশে কি যুদ্ধ চলমান? দেশে কি এমন অরাজকতা বিরাজ করছে যে নিজের ঘর ফেলে রেখে ১২ হাজার টাকা দিয়ে হোটেল রুম ভাড়া করে অন্যের স্ত্রী কে নিজের স্ত্রী বানিয়ে লুইচ্চামি করতে হবে? পত্রিকা খুললেই প্রতিদিন শিশু বলাৎকারের নিউজ। মসজিদ, মাদ্রাসা গুলি তোমরা কি বানিয়েছ তা তোমরা বিবেকের আয়নায় গিয়ে প্রশ্ন কর। উত্তর পেয়ে যাবে। পরিশেষে তোমাদের কে আবারও বলছি নিজেদের লুইচ্চামি, বদমায়েশি, ব্যভিচার সহ সকল পর্যায়ের পাপ কাজের Defend করতে গেলে দেশের প্রচলিত আইন দ্বারা কর। কোন ভাবেই আমাদের শান্তির ধর্ম ইসলামের নাম ব্যবহার করো না কারন Islam is not your personal property। ইসলাম ধর্ম কারো বাপ দাদার পৈত্রিক সম্পত্তি নয় কিংবা বিশ্বের কোটি কোটি ধর্ম প্রান মুসলমানদের প্রিয় ধর্মের ইজারা দেয়া হয় নি। কাজেই দয়া করে নিজেদের অপকর্ম আড়াল করতে ধর্মের ব্যবহার বন্ধ কর আর তা না হলে ধর্ম অবমাননার দায়ে ও ধর্ম কে ব্যবহার করে রাজনৈতিক ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটানোর অপচেষ্টার কারনে তোমাদের বিরুদ্ধে আমাদের আস্থার জায়গা মহামান্য আদালতের আশ্রয় নিতে বাধ্য হোব। তোমাদের কে সুপথে আনতে দেশের প্রচলিত আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হোব। সকলের মংগল কামনা করে, অন্ধকারের মানুষ গুলোকে আলোর পথে ফিরে আসার প্রত্যাশা জানিয়ে, সবার সুস্বাস্থ্যে কামনা করছি। ভালো থাকুক জগৎ এর সকল শান্তি কামী মানুষ। শাহীন রাকিব ৬/০৪/২১

ব্রেকিং নিউজঃ