| |

ইমরানের বিদায়,পাকিস্তানের কোন প্রধানমন্ত্রী পূর্ণ মেয়াদ শেষ করতে পারেনি

আপডেটঃ 12:42 pm | April 11, 2022

Ad

প্রদীপ ভৌমিক ॥ পাকিস্তান নামক রাষ্ট্রটির জন্মের পর ১৯৪৭ সালে প্রথম প্রধানমন্ত্রী হন লিয়াকত আলী খান। রাওয়ালপিন্ডিতে আততায়ীর গুলিতে চার বছরের মাথায় তিনি নিহত।*পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী খাজা নাজিমুদ্দিন কে ১৯৫৩ সালে দুই বছরের মাথায় ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।*মোহাম্মদ আলী বগুড়াকে ভারপ্রাপ্ত গভর্নর-জেনারেল ইস্কান্দার মির্জা পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় পথ থেকে সরিয়ে দেয়।*চৌধুরী মোহাম্মদ আলী ১৯৫৬ ইউসুফ সালে তৎকালীন সেনাপ্রধান আইয়ুব খানের বিরুদ্ধে কথা বলায় ও তার দলের সাথে দ্বন্দ্বের কারণে ক্ষমতা থেকে সরে যেতে বাধ্য হয় এক বছরের মাথায়।*হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী ১৯৫৬ সালের ১২ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন কিন্তু ইস্কান্দার মির্জার সাথে মতবিরোধের কারণে এক বছরের মাথায় তাকে বিদায় নিতে হয়।*ইব্রাহিম ইসমাইল চুন্দ্রিগার১৯৫৭ সালে১২ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী হন কিন্তু মাত্র দুই মাসের মাথায় তাকে বিদায় নিতে হয়।*ফিরোজ খান নুন ১৯৫৮ সালের ৭ অক্টোবর জেনারেল আইয়ুব খান সামরিক ক্ষমতা ঘোষণার সময় তাকে বরখাস্ত করেন।*নুরুল আমিন ১৯৭১ সালে ২০ডিসেম্বর তাকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেন ১৩ দিনের মাথায় জেনারেল ইয়াহিয়া খান।*জুলফিকার আলী ভুট্টো পাকিস্তানের ক্ষমতায় ছিলেন। তারপর তাকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে কারাবন্দি করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে পৃথিবী থেকে বিদায় করেন জেনারেল জিয়াউল হক।*মোহাম্মদ খান জূনেজা ১৯৮৮ সালে ২৯ মে তিন বছরের মাথায় তার সরকারকে বরখাস্ত করা হয়।*বেনজির ভুট্টো রাষ্ট্রপতি গোলাম ইসহাক খান ১৯৯০ সালে ৬ আগস্ট তাকে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে দেন.।*নওয়াজ শরীফকে ১৯৯৩সালের১৮ জুলাই পাকিস্তান সেনাবাহিনীর প্রধান ওয়াহিদ কাকার নেওয়াজ শরীফ ও তৎকালীন প্রেসিডেন্ট গুলাম ইসহাক খানকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেন তিন বছরের কম সময়ের মধ্যে।*বেনজির ভুট্টো পুনরায় ক্ষমতায় এলে তাকে ১৯৯৬ সালের নভেম্বর মাসে ৩ বছরের কম সময়ের মধ্যে বরখাস্ত করা হয়।*নওয়াজ শরীফকে ১৯৯৯ সালের ১২ অক্টোবর জেনারেল পারভেজ মুশারফ পাকিস্তানি জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে দুই বছরের কম সময়ের মধ্যে তাকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেন।*মীর জাফর উল্লাহ খান জামালী ১৯ মাস দায়িত্বপালনের মাথায় জেনারেল পারভেজ মোশাররফ তাকে বরখাস্ত করে।*চৌধুরী সুজাত ২০০৪ সালে ৩০ জুন পার্লামেন্ট নির্বাচনের মাধ্যমে তিনি প্রধানমন্ত্রী হন দুই মাস পর সেই প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে তাকে চলে যেতে হয়।*শওকত আজিজ ২০০৪ সালের ২৮ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী নিযুক্ত হন তিন বছরের মাথায় তিনি বিদায় নেয়।*ইউসুফ রাজা গিলানি আদালত অবমাননার দায়ে ২০১২ সালে তিনি চার বছরের মাথায় বিদায় নেন.*রাজা পারভেজ আশরাফ এক বছরের কম সময়ে তিনি ক্ষমতা থেকে সরে যান।*নওয়াজ শরীফ তিনি চার বৎসর ৫৩ দিন ক্ষমতায় ছিলেন আদালত তাকে অভিশংসিত করে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে বিদায় দেয়।*শহীদ খান নওয়াজ শরীফের ক্ষমতা থেকে বিদায়ের পর তিনি প্রধানমন্ত্রী হন ২০১৮ সালে ৩১ মে পার্লামেন্টের মেয়াদ শেষ হলে এক বছরের কম সময়ে তিনি বিদায় নেন।*সর্বশেষ ইমরান খান। ক্রিকেটের বরপুত্র প্লে বয় হিসাবে চিহ্নিত, ২০১৮ সালের ১৮ আগস্ট ক্ষমতায় আসেন বিদায় নেন ২০২২ সালের ১০ এপ্রিল. পাকিস্তানের পার্লামেন্ট তাকে অনাস্থা দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে দেয়। উনার সময়কাল ছিল তিন বছরের একটু বেশি।পাকিস্তান নামক রাষ্ট্রটির দুর্ভাগ্য যেখানে কোন প্রধানমন্ত্রী তার পূর্ণ মেয়াদ পূরণ করতে পারেনি এ পর্যন্ত। পাকিস্তান নামক রাষ্ট্রটির ক্ষমতার হাতবদলে যাদের হাত থাকে তারা হল পাকিস্তান সেনাবাহিনী ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ইমরান খান স্পষ্ট করেই বলেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাম।

ব্রেকিং নিউজঃ