| |

শহর রক্ষা বাঁধে ধস, হুমকিতে বেতাগী

আপডেটঃ 3:29 pm | April 09, 2016

Ad

জেলা প্রতিনিধি : বিষখালী নদীর স্রোতে বরগুনার বেতাগী পৌর শহর রক্ষা বাঁধে ধস দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে হাসপাতাল ও লঞ্চঘাট এলাকার বেশকিছু দোকান নদীগর্ভে চলে গেছে। এতে হুমকির মধ্যে পড়েছে পৌর শহরটি।

২০১১ সালে বিষখালী নদীর ভাঙন থেকে বেতাগী পৌর শহরকে রক্ষায় নদীপাড়ে বাঁধ দেয় পানি উন্নয়ন বোর্ড। গত ৫ বছর এই বাঁধ নদী ভাঙন থেকে রক্ষা করেছে বেতাগী শহরকে। কিন্তু গত বর্ষা মওসুমে হাসপাতাল, লঞ্চঘাট ও খাদ্য গুদাম এলাকায় বাঁধটিতে ধস দেখা দেয়। ইতিমধ্যে বেতাগী বাজারের বেশকিছু দোকান নদীগর্ভে চলে গেছে। অনেকেই বাঁশ ও কাঠের বেড়া দিয়ে ভাঙন প্রতিরোধের চেষ্টা করছেন।

লঞ্চঘাট থেকে উত্তর-পূর্ব দিকে বাঁধের কিছু অংশ নদীগর্ভে চলে যাওয়ায় লবনাক্ত পানি ঢুকে পড়ছে ফসলি জমিতে। এ অবস্থায় কেওয়াবুনিয়া ঝোঁপখালীসহ বেশ কয়েকটি গ্রামের কৃষক বিপাকে পড়েছেন।

বাঁধ সংলগ্ন ঝোঁপখালী এলাকার পনু নামে এক ব্যক্তি বাংলামেইলকে জানান, গত বর্ষায় নদীতে জোয়ারের চাপ বেড়ে যাওয়ায় বাঁধটি ভেঙে যায়।সে সময় প্রায় ১৫ দিন পানিবন্দি ছিলেন তারা। প্রায় এক একর জমির আমন ধান পঁচে যায়। পরবর্তীতে ইরি আবাদ করলেও একবার লবনাক্ত পানি ঢুকে তা আর হয়নি। বাঁধটির যে অবস্থা তাতে এ বছরও কোনো ফসল ফলানো সম্ভব হবে না বলেও জানান তিনি।

হাসপাতাল ও লঞ্চঘাট এলাকার বাসিন্দারা জানান, বর্ষা এলে পানির চাপ বাড়ে। তখন নদীর স্রোতের মধ্যে ফেলা হয় বালুর বস্তা। যা ভাঙন প্রতিরোধে কোনো কাজেই আসে না। এখন পানির চাপ কম থাকলেও নিরব রয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

এ ব্যাপারে বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী এসএম শহিদুল ইসলাম বাংলামেইলকে জানান, স্থায়ীভাবে বাঁধ সংস্কার করার ব্যাপারে কাজ চলছে। তবে অস্থায়ী প্রতিরক্ষার জন্যও শিগগিরই কাজ শুরু করবেন তারা।

ব্রেকিং নিউজঃ