| |

শত কাজের ভিড়ে পরিবারের সঙ্গে একান্তে সময় কাটাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

আপডেটঃ 9:22 pm | May 16, 2016

Ad

আলোকিত ময়মনসিংহ ডেক্স্র: বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় কাজে সব সময়ই ব্যস্ত থাকতে হয়। শত কাজের ভিড়ে অবসর বলতে তেমন কোনো সুযোগই নেই। তবে এবার বহু বছর পর লন্ডনে একান্ত পারিবারিকভাবেই সময় কাটাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। খণ্ডকালীন এই সময়ে একমাত্র মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুল ছাড়া বঙ্গবন্ধু পরিবারের আর সবাই রয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর অবসর কাটানোর সঙ্গী হিসেবে।
রোববার (১৫ মে) স্থানীয় সময় বিকেল ৪টা ১০ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফাইটে লন্ডনের হিথ্রো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। বিমানবন্দর থেকে হোটেলে ফিরেই টিউলিপ সিদ্দিক এমপির শিশুকন্যা আজালিয়াকে কোলে তুলে নেন প্রধানমন্ত্রী।
এসময় শেখ রেহানা, টিউলিপের স্বামী ক্রিস্টিয়ান উইলিয়াম সেন্ট জন পার্সি, টিউলিপের ভাই রেদোয়ান সিদ্দিক ববি, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা ও ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়সহ পরিবারের অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
লন্ডন অবস্থানকালীন পুরো দু’দিন এভাবে সময় কাটানোর কথা থাকলেও মঙ্গলবার (১৭ মে) সীমিত পরিসরে হোটেল প্রাঙ্গণেই দলীয় নেতাকর্মীর সঙ্গে মিলিত হতে পারেন প্রধানমন্ত্রী।
বুধবার (১৮ মে) সকাল ৮টা ২০ মিনিটে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের একটি ফাইটে বুলগেরিয়ার রাজধানী সোফিয়ার উদ্দেশে লন্ডন ছাড়বেন তিনি। স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ১০ মিনিটে সোফিয়া বিমানবন্দরে পৌঁছার কথা রয়েছে শেখ হাসিনার। কনফারেন্স চলাকালীন মেরিননিলা সোফিয়া হোটেলে অবস্থান করবেন তিনি।
এদিকে, প্রধানমন্ত্রীর কাছে নারীর মতায়নে বাংলাদেশের চলমান সংগ্রাম ও সাফল্যের কথাই আশা করছে গ্লোবাল ওমেন লিডারস ফোরাম। কনফারেন্স সূত্রে এমনটাই জানা যায়।
এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বলেন, কনফারেন্সে যাচ্ছেন সেখানে গেলেই তা জানতে পারবেন।
প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব জানান, সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বুলগেরিয়ার প্রেসিডেন্ট রোজেন প্লেনিলিয়েভের সঙ্গে তার প্রাসাদে সাাৎ করবেন।
এছাড়া, আগামী ২০ মে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে আনুষ্ঠানিক বৈঠকের পর উভয়ের উপস্থিতিতে কয়েকটি চুক্তি স্বারিত হবে এবং তারা যৌথ বিবৃতি প্রদান করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গ্র্যান্ড হোটেল সোফিয়ায় ইউনেসকোর মহাপরিচালক এবং বুলগেরিয়ান কাউন্সিল অব উইমেন ইন বিজনেসের চেয়ারপারসন বরিয়ানা মানোলোভা আয়োজিত নৈশভোজে যোগ দেবেন। সেইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সম্মানে বুলগেরিয়ার জাতীয় সংসদের চেয়ারউইমেন সেটস্কা সাচেভার উদ্যোগে গ্র্যান্ড হোটেল সোফিয়ায় আয়োজিত ভোজসভায় যোগ দেবেন।
সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২১ মে শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ৬টা ৩০ মিনিটে বাংলাদেশের উদ্দেশে বুলগেরিয়া ত্যাগ করবেন।

ব্রেকিং নিউজঃ