| |

ইউরো ফুটবলের পর্দা উঠছে শুক্রবার

আপডেটঃ 10:04 pm | June 09, 2016

Ad

স্পোর্টস ডেস্ক: চলছে শতবর্ষী কোপা আমেরিকা ফুটবলের রোমাঞ্চকর লড়াই। যেখানে আছে আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, উরুগুয়ে, চিলির মতো তারকা সমৃদ্ধ দলগুলো। এর মধ্যেই ফুটবলের আরেক জমজমাট আসর শুরুর অপেক্ষায়। সেটা ইউরো ফুটবল। ইউরোপের বাছাই করা ২৪টি দলের অংশগ্রহণে জমাটি এই ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু হবে শুক্রবার থেকে। উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে স্বাগতিক ফ্রান্স ও রোমানিয়া। বাংলাদেশ সময় রাত একটায় শুরু হবে ম্যাচ।

কোপা আমেরিকা ফুটবলের ম্যাচ বাংলাদেশ সময় ভোর কিংবা সকালের দিকে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কিন্তু ইউরো ফুটবলের বেশীর ভাগ ম্যাচ মধ্যরাতে কিংবা তারও আগে। চলছে মাহে রমযান। এমন মাসে ফুটবল ভক্তদের জন্য কোপা আমেরিকা ও ইউরো ফুটবল টুর্নামেন্ট উপভোগ করাটা কষ্টেরই। তারপরও প্রিয় দলের ম্যাচ দেখা থেকে কেউ বঞ্চিত হতে চাচ্ছে না।

এবারই প্রথম নতুন ফরম্যাটে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ইউরো ফুটবলের ১৫তম আসর। আগের আসরগুলোতে অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা ছিল ১৬টি। এবার তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪টি। মোট ছয়টি গ্রুপে চারটি করে দল গ্রুপ পর্বে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। ছয় গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ দল নিশ্চিত করবে নক আউট পর্বের খেলা। ছয় গ্রুপের মধ্যে সেরা তৃতীয়স্থান অধিকারী মোট চারটি দলও যোগ দেবে গ্রুপ অব সিক্সটিনে। অর্থাৎ গ্রুপ পর্বের লড়াইয়ে ২৪ দলের মধ্য থেকে আটটি দল প্রাথমিকভাবে ঝড়ে পড়বে। ১০ জুন থেকে শুরু হচ্ছে লড়াই। ফাইনাল ম্যাচ ১০ জুলাই। ২৪ দল শিরোপার জন্য লড়বে ফ্রান্সের ১০টি শহরে।

ইউরো ফুটবলের এবারের আসরে হট ফেবারিট ভাবা হচ্ছে জার্মানিকে। বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন তারা, এটাই মূলত কারণ। যদিও ইউরো ফুটবলে তাদের সর্বশেষ শিরোপা সেই ১৯৯৬ সালে। সর্বশেষ ফাইনাল তারা খেলেছে অবশ্য ২০০৮ সালে। কিন্তু সেবার হারতে হয়েছে স্পেনের কাছে। শিরোপা ও রানার্স আপের দিক থেকে জার্মানি সেরা ইউরো ফুটবলে। স্পেনের সঙ্গে যৌথভাবে সর্বাধিক তিন শিরোপার মালিক তারা। সোভিয়েত ইউনিয়নের সঙ্গে যৌথভাবে সর্বাধিক তিনবার ফাইনাল খেলা দল জার্মানিই। অর্থাৎ মোট ছয়বার ফাইনাল খেলে জার্মানি শিরোপা জিতেছে তিনবার।

সেই দিক থেকে স্পেনের গড়টা অবশ্য আরও ভালো। চারবার ফাইনাল খেলে তিনবার শিরোপা জিতেছে স্প্যানিশরা। এর মধ্যে গত দুই আসরেরই রানিং চ্যাম্পিয়ন তারা (২০০৮, ২০১২)। এবার কতদূর আগাতে পারবে স্পেন?

স্বাগতিক ফ্রান্সও শিরোপা জেতার জন্য পাখির চোখ করে আছে। ফ্রান্স দুইবার ফাইনালে উঠেছে, দুইবারই শিরোপা জিতেছে তারা। প্রথমটি ১৯৬৪ সালে আয়োজক হিসাবে। দ্বিতীয়টি ২০০০ সালে। ইউরো ফুটবলে একবার করে শিরোপা জেতার রেকর্ড রয়েছে সোভিয়েত ইউনিয়ন, ইতালি, চেক প্রজাতন্ত্র, নেদারল্যান্ডস, ডেনমার্ক ও গ্রীসের। সময়ের তারকা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর দল পর্তুগাল কোন সময় চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি। ২০০৪ সালে ফাইনালে উঠলেও রানার্স আপ হিসাবে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে তাদের। এবার ফর্মের তুঙ্গে থাকা রোনালদো কি পারবেন, শিরোপা বন্ধাত্ম ঘুচাতে?

১০ জুন পর্দা উঠবে ইউরো ফুটবলের। তবে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়ে বি গ্রুপে ১১ জুন মিশন শুরু করবে ইংল্যান্ড। একই গ্রুপে থাকা গ্যারেথ বেলের ওয়েলস প্রথমবারের মতো ইউরোতে নাম লিখিয়েছে। তাদের প্রথম ম্যাচ স্লোভাকিয়ার বিরুদ্ধে। ১২ জুন জার্মানি প্রথম মাঠে নামবে। সি গ্রুপে মুলারদের প্রতিপক্ষ ইউক্রেন।

অন্যদিকে ডি গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আগামী ১৩ জুন মাঠে নামবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন স্পেন। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ চেক প্রজাতন্ত্র। এবারের আসরের ডেথ গ্রুপ ই। যেখানে রয়েছে বেলজিয়াম, ইতালি ও সুইডেন। সঙ্গে আছে জায়ান্ট কিলার আয়ার‌ল্যান্ড। সব মিলিয়ে মৃত্যু ফাঁদ যেন এই গ্রুপটি। ১৩ জুন বেলজিয়াম-ইতালি ও সুইডেন-আয়ারল্যান্ড মুখোমুখি হবে।

এফ গ্রুপে রয়েছে রোনালদোর পর্তুগাল। ১৪ জুন আইসল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়ে ইউরো যাত্রা শুরু করবে পর্তুগিজ শিবির। একইদিন গ্রুপের অপর ম্যাচে মোকাবেলা করবে অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি।

ব্রেকিং নিউজঃ