| |

জনপ্রশাসন পদক পেলেন ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী অফিসার রাজীব কুমার

আপডেটঃ 8:47 pm | July 23, 2016

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী: গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের জনপ্রশাসন পদক ২০১৬ অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী অফিসার রাজীব কুমার সরকার পদক পেয়েছেন।
২৩ জুলাই শনিবার জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকীর সভাপতিত্বে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কে এ উপলে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে পদক তুলেদেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোজাম্মেল হক। পদক প্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীব কুমার সরকার এর প্রশাসনিক কর্মকান্ড তুলে ধরে এ সময় তিনি বক্তব্য রাখেন।
ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা এবং সংশ্লিষ্ট এলাকার বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে অসামান্য ভুমিকা পালন করায় রাজীব কুমার সরকারকে এ পদকে ভুষিত করা হয়। ২০১৫ সালের মার্চে রাজীব কুমার সরকার ঈশ্বরগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী অফিসার যোগদানের পরপরই বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে সক্রিয় ভুমিকা রাখেন। এ সময় থেকেই তিনি বাল্য বিবাহ রোধে সংশ্লিষ্ট উপজেলার সাধারন মানুষদের বিশেষ করে কন্যা সন্তানের অভিভাবকদের উদ্ভুদ্ধ করার মধ্য দিয়ে তাদের মাঝে সচেতনতার সৃষ্টি করেন। উপজেলার নির্বাহী অফিসার রাজীব সরকার এ সময় বিভিন্ন স্থানে উঠান বৈঠক করেন এবং এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ সহ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মেম্বার মসজিদের ইমাম মন্দিরের পুরোহিত গীর্জার ফাদার সহ ধর্মপ্রাণ ব্যাক্তিদের একীভুক্ত করেন। পাশাপাশি প্রাথমিক স্কুল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক শিকিা মন্ডলীদের নিয়ে ঈশ্বরগঞ্জে বাল্য বিবাহের কুফল সম্পর্কে অবিরাম আলোচনা সভা, মতবিনিময় এবং অভিভাবকদের নিয়ে তাদের বাড়িতে বাড়িতে উঠান বৈঠকের মাধ্যমে শতভাগ সচেতন করেন যা বাস্তবভিত্তিক রুপ লাভ করে। ২০১৬ সালের প্রথমার্ধে দেখা যায় ঈশ্বরগঞ্জে বাল্য বিবাহ প্রথা প্রায় বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। অভিভাবকদের সচেতনতা এবং ধর্মপ্রাণ মুসল্লীসহ শিক্ষক শিকিা এনজিও কর্মী সহ আপাময় ঈশ্বরগঞ্জবাসী ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার  রাজীব কুমার সরকার তার সুযোগ্য নেতৃত্বে প্রশাসনিক দতার কারণে এই অসাধ্য সাধন করতে পেরেছেন বলে ঈশ্বরগঞ্জবাসী মনে করেন। পদক প্রাপ্তির পর ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী অফিসার রাজীব কুমার সরকার তার অনুভুতি ব্যাক্ত করে বলেন এই সম্মাননা ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলাকে বাল্য বিবাহ থেকে মুক্ত করার একটি স্বীকৃতি যা সরকারী কর্মকর্তাদের সর্বোচ্চ পদক জনপ্রশাসনে তার কর্ম পরিচিতিকে আরো বিস্তিৃতি করবে। তিনি আরো জানান সকলের প্রচেষ্টায় ৩০টি বাল্য বিবাহ ইতিমধ্যে বন্ধ করা হয়েছে। সরকারের প্রশাসনিক অফিসার রাজীব কুমার সরকার এর জন্মস্থান ঐতিহ্যবাহী কিশোরগঞ্জ জেলায়। ঈশ্বরগঞ্জ  ইউএনও হিসেবে তিনি যোগদান করেন ১৯ মার্চ ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দে। পিতার নাম শ্যামল কুমার সরকার, মাতা জবা সরকার। অনুষ্ঠানে নির্বাহী অফিসারের স্ত্রী, সরকারী বেসরকারী পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য পদক হিসেবে নির্বাহী কর্মকর্তার হাতে প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষরিত সার্টিফিকেট, নগদ পঞ্চাশ হাজার টাকা ও মেডেল তুলে দেন প্রধান অতিথি।

ব্রেকিং নিউজঃ