| |

টেস্টেও টি২০ মেজাজে থাকতে চান সাব্বির

আপডেটঃ 9:18 pm | July 26, 2016

Ad

স্পোর্টস: টেস্ট ক্রিকেট এখন আর কোনো দল খুব একটা ধীরে সুস্থে খেলে না। বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যানরা এখন টেস্ট ম্যাচেও অ্যাটাকিং ব্যাটিং করে থাকেন। এমনকি প্রয়োজনে খুব দ্রুত টেস্টে সেঞ্চুরিও তুলে নিচ্ছেন তারা। বিশেষ করে বিরাট কোহলি, এবি ডি ভিলিয়ার্স ও ব্রেন্ডন ম্যাককালামদের মতো ব্যাটসম্যানরা আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করে সেঞ্চুরি তুলে নিচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় টেস্ট ম্যাচে সুযোগ পেলে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করতে চান বলে জানিয়েছেন সাব্বির রহমান রুম্মান। যিনি বাংলাদেশের টি২০ ক্রিকেটে হার্ড হিটার হিসাবে পরিচিত।

মঙ্গলবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে কন্ডিশনিং ক্যাম্প শেষে এ বিষয়টি প্রসঙ্গে সাব্বির বলেন, ‘টেস্টে অ্যাটাকিং ব্যাটসম্যানরাই সফল। অবশ্যই আমিও তেমনটি মনে করছি। এখন যে ব্যাটসম্যান টি২০তে একশো রান করছে, সেই দেখা যাচ্ছে টেস্টে খুব ধীরে খেলছে। সব ম্যাচেই আসলে এক রকম। টেস্ট হলেই যে আমি ধরে খেলবো, আবার টি২০তে খুব মেরে খেলবো; ব্যাপারটা এ রকম না। যে খেলায় খেলি না কেন, রান করাটাই আমার মূল লক্ষ্য।’

বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে প্রথম দিকে একটু নিচের দিকে ব্যাটিং করতেন সাব্বির রহমান। তবে ওয়ানডে এবং টি২০তে ওয়ানডাউন পজিশনে ব্যাটিং করে দারুণ সফলও হয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে বাংলাদেশ দলও তার এই পজিশনে ব্যাটিং করায় দারুণ উপকৃত হয়েছে। তাই টেস্ট ম্যাচে খেললে হয়তো টপঅর্ডারে ব্যাট করবেন বলে অনেকে মনে করছেন।

এ বিষয়টি নিয়ে সাব্বির বলেন, ‘ক্রিকেট এত দ্রুতগতির হয়ে গেছে যে, টেস্ট-টি২০; যে কোনো জায়গায় রান করলেই ব্যাটসম্যান ভালো, আর না করলেই খারাপ। সব সময় আমার চেষ্টা থাকে রান নিয়মিত করার জন্য। ঘরোয়া ক্রিকেটের বিসিএল, প্রিমিয়ার লিগ বা জাতীয় দলের ওয়ানডে বা টি২০, যেখানেই খেলি না কেন, আমার উদ্দেশ্য থাকে রান করা। তাই আমি পজিশন নিয়ে খুব বেশি চিন্তা করছি না।’

তারপরও প্রত্যেক ক্রিকেটার একটি পছন্দ মতো জায়গা থাকে। সেই জায়গাতে ব্যাটিং করে বেশি মজাও পাওয়া যায়। তবে সাব্বিরের তেমন কোনো জায়গা নেই। অধিনায়কের ইচ্ছে মতো যেকোনো জায়গাতে ব্যাটিং করতে পারবেন বলে মনে করেছেন তিনি। তবে টেস্ট ম্যাচে পাঁচ-ছয় নাম্বার ব্যাটিং পজিশনটা তার মনে ধরেছে।

টেস্ট ম্যাচে কোনো পজিশনে ব্যাটিং করা নিয়ে সাব্বির বলেন, ‘টেস্টের প্রথম ১০-১২ ওভার বল খুব মুভ করে। ফলে এক বা দুই নম্বরে নামা ব্যাটসম্যানরা কিছু সমস্যার মুখে পড়ে। তবে যারা পাঁচ বা ছয় নম্বরে ব্যাটিং করে তাদের স্পিন খেলতে হয়, সে সময় পেসারদের বলেও মুভমেন্ট থাকে। নিজের পছন্দের জায়গার কথা বললে বলবো, আমার জন্য হয়তো পাঁচ বা ছয় নম্বর জায়গাই বেশি ঠিক হবে।

ব্রেকিং নিউজঃ