| |

পড়শীর নতুন অভিজ্ঞতা

আপডেটঃ 5:06 pm | September 05, 2016

Ad

বিনোদন: এরই মধ্যে ধারাবাহিকভাবে বেশ কিছু জনপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন চলতি প্রজন্মের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী সাবরিনা পড়শী। অডিওর পাশাপাশি চলচ্চিত্রের গানেও ব্যস্ত তিনি। তবে পড়শী সবচেয়ে বেশি ব্যস্ত স্টেজে। দেশ-বিদেশের স্টেজ শো নিয়ে সারা বছরই চলে তার ব্যস্ততা। এদিকে এরই মধ্যে গায়িকা থেকে নায়িকারূপেও দর্শকদের সামনে এসেছেন তিনি। পাশাপাশি মডেল হিসেবেও কাজ করেছেন বিজ্ঞাপনে। তবে পড়শী বর্তমানে ব্যস্ত স্টেজ শো নিয়ে। কেমন লাগে স্টেজ শো করতে? পড়শী বলেন, অনেক ভালো লাগে। কারণ, সরাসরি এখানে শ্রোতাদের সাড়া পাওয়া যায়। আমার গান কতটুকু সঠিক হচ্ছে সেটাও স্টেজ শো করার সময় বুঝতে পারি। সব মিলিয়ে স্টেজ শো করতে আমি খুব স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। অনেক দিন ধরে নতুন অ্যালবাম প্রকাশ হচ্ছে না। নতুন গান কবে নাগাদ পাবেন শ্রোতারা? পড়শী বলেন, আসলে ইচ্ছে করেই অ্যালবাম করিনি। তাছাড়া স্টেজ ব্যস্ততাও ছিল। সত্যি বলতে এখন পুরো ১০-১২টি গান নিয়ে অ্যালবাম করে আর লাভ নেই। সব গান শ্রোতাদের কানে পৌঁছায় না। তাছাড়া সব গানের ভিডিও করাও সম্ভব হয় না। এ কারণে সিদ্ধান্ত নিয়েছি এখন থেকে সিঙ্গেলস আকারেই গান প্রকাশ করবো। সেই ধারাবাহিকতাতেই সবার জন্য এবার চমক থাকছে ঈদে। চমকটা কি? পড়শী বলেন, ঈদে একটি গান করেছি। এর কথা ও সুর রচনা করেছেন তানজীব সারোয়ার। আর সংগীতায়োজন করেছেন জুয়েল মোর্শেদ জ্যু। গানটিতে সহশিল্পী হিসেবে কণ্ঠও দিয়েছেন জুয়েল ভাই। সব মিলিয়ে ভিন্নধর্মী একটি গান হয়েছে। আমার বিশ্বাস গানটি ভালো লাগবে সবার। আর এটি ঈদে অডিও আকারে প্রকাশ হলেও পরে এর ভিডিও তৈরি করবো। অভিনয়ের পরতো এরই মধ্যে আরজে হিসেবেও আত্মপ্রকাশ হয়েছে। কেমন লাগছে? জাগো এফএম রেডিও স্টেশনে প্রতি সপ্তাহে নিয়মিত শো করছি। এটা আমার জন্য অন্যরকম অভিজ্ঞতা। তবে নতুন নতুন অভিজ্ঞতা অর্জন করতে আমার ভালো লাগে। আরজেগিরিটাও উপভোগ করছি বেশ। আরজের পাশাপাশিতো সম্প্রতি ডিজাইনার হিসেবেও আত্মপ্রকাশ ঘটলো। ‘স্টাইলার্ট’ নামে একটি ফ্যাশন হাউজও দিয়েছেন। এটা কিভাবে? পড়শী বলেন, ৩১শে আগস্ট উত্তরায় এ হাউজটি আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করেছে। নারী, পুরুষের পোশাক ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী থাকছে এখানে। আসলে ডিজাইনিংটা আমার শখ। সেই শখটাই এবার আনুষ্ঠানিক রূপ পেলো। এরই মধ্যে হাউজটি চালুর পর থেকে অনেক ভালো সাড়া পাচ্ছি। অনলাইনেও ক্রেতারা এখান থেকে কেনাকাটা করতে পারবেন। নাটক ও বিজ্ঞাপনের পর গেল ঈদে চলচ্চিত্রেও কাজ করা হয়েছে পড়শীর। ‘মেন্টাল’ নামক ছবিতে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন তিনি। সামনেও কি চলচ্চিত্রে পাওয়া যাবে? উত্তরে পড়শী বলেন, সেটা এখনই বলতে পারছি না। ‘মেন্টাল’-এ আমার অভিনয় প্রশংসা করেছেন অনেকেই। যেহেতু নতুন বিষয় তাই আমিও উপভোগ করেছি বেশ। যদি পছন্দসই চরিত্র পাই, গল্প ভালো হয় তাহলে হয়তো সামনে অভিনয় করতেও পারি। তবে আমি যেহেতু গানের মানুষ, তাই গান নিয়েই সব সময় থাকতে চাই। এদিকে পড়শীকে নিয়ে নতুন খবর হচ্ছে, তিনি এবার বিটিভির ঈদ ‘আনন্দমেলা’য় আল মনসুরের সঙ্গে সহউপস্থাপক হিসেবে পর্দায় উপস্থিতি ঘটাবেন। এ প্রসঙ্গে পড়শী বলেন, এমন একটি বড় কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পেরে দারুণ আনন্দিত আমি। এ আনন্দের কথা বলে বোঝাতে পারবো না। এটাও দারুণ এক নতুন অভিজ্ঞতা আমার জন্য।  গানের ক্ষেত্রে পারিবারিক সাপোর্ট কি রকম? পড়শী বলেন, মা ও ভাইয়া আমাকে যে সাপোর্ট করেন সেটা না হলে এ পর্যন্ত আসা অসম্ভব ছিল। এখনও সব সময় প্রতিটি বিষয়ে তাদের পূর্ণ সহযোগিতা পাই। এদিক দিয়ে আমি খুব লাকি।

ব্রেকিং নিউজঃ