| |

ফুলবাড়ীয়া পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় ২ জন নিহত

আপডেটঃ 7:54 pm | November 27, 2016

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী : ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া কলেজ সরকারিকরণের দাবিতে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের সময় কলেজের সহকারী অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ এবং অন্যজন স্থানীয় মাছবিক্রেতা সফর আলী নিহত হয়েছেন।
রোববার (২৭ নভেম্বর) দুপুরে ফুলবাড়ীয়া উপজেলা সদরের কলেজের ভিতরেই এ ঘটনা ঘটে। শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, পুলিশ ক্যাম্পাসে ঢুকে আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা চালিয়েছে।
এ সংঘর্ষের ঘটনায় আরো অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।
ফুলবাড়ীয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিফাত খান রাজীব জানান, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার একপর্যায়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তারা মারা যেতে পারেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ফুলবাড়ীয়া কলেজে সরকারীকরণের দাবিতে দুপুরে পৌর এলাকায় আন্দোলনকারীরা মিছিল বের করতে চাইলে পুলিশ বাঁধা দেয়। পরে কলেজের ক্যাম্পাসে ঢুকে আন্দোনকারীদের ওপর হামলা করে পুলিশ।
এ সময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এতে আহত হন পথচারী মাছবিক্রেতা সফর আলী এবং সহকারী অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ। ফুলবাড়ীয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে সফর আলী মারা যান। অন্যদিকে সহকারী অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদকে ময়মনসিংহ কমিউনিটি বেজড মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ফুলবাড়ীয়া কলেজের সহকারী অধ্যাপক ঈমাম হোসেন।
কলেজ শিক্ষক আরো জানান, পুলিশের লাঠিপেটায় শিক্ষক হেলাল উদ্দিন, উপেন্দ্র চন্দ্র দাস, মুজিবুল হক, মুজিবুর রহমানসহ শিক্ষার্থীরা আহত হন।
এ দিকে ওই ঘটনার প্রতিবাদে আন্দোলনকারীরা উপজেলা সদরের সড়কে গাছ ফেলে অবরোধ সৃষ্টি করে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি রিফাত খান রাজীব।
ওসি বলেন, ঘটনাস্থল থেকে অনেক দূরে স্থানীয় উপজেলা পরিষদের সামনে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার মাঝে পড়ে বৃদ্ধ পথচারী সফর আলী অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। পরে পুলিশই তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তার মৃত্যুর সঙ্গে লাঠিচার্জের ঘটনার কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

ব্রেকিং নিউজঃ