| |

গনতন্ত্র রক্ষা দিবসে ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও র‌্যালী

আপডেটঃ 3:12 am | January 06, 2017

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী : ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামীলীগের উদ্যোগে গনতন্ত্র রক্ষা দিবস পালন উপলক্ষে শহরের কৃষ্ণচুড়া চত্বরে সমাবেশ ও র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার  দুপুর ৩টায় মহানগর আওয়ামীলীগ আয়োজিত গনতন্ত্র রক্ষা দিবসের আলোচনা সভা ও গনমিছিল শুরুর পুর্বে ময়মনসিংহ শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে ব্যানার, ফেস্টুন ও বাদ্যযন্ত্র সহকারে হাজার হাজার নেতাকর্মী কৃষ্ণচুড়া চত্বরে জড়ো হতে থাকে।
ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এহতেশামুল আলমের সভাপতিত্বে ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক আলহাজ্ব হোসাইন জাহাঙ্গীর বাবু‘র পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সদস্য মারুফা আক্তার পপি, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব জহিরুল হক খোকা, সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, আওয়ামীলীগ নেতা ও ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, আওয়ামীলীগ নেতা ও ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মো: ইকরামুল হক টিটু, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক অধ্যাপক গোলাম ফেরদৌস জিল্লু, শহর আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মো: শাহজাহান পারেভেজ, জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি প্রদীপ ভৌমিক প্রমুখ।
কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সদস্য মারুফা আক্তার পপি বলেন, সময় এসেছে সিদ্ধান্ত নেয়ার আমরা কি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির সাথে থাকব না স্বাধীনতা বিরোধীদের সাথে থাকব। তিনি বলেন, বিচার করতে হবে কার মাঝে দেশপ্রেম বেশি। সব বিচার বিবেচনায় নাম একটাই আসে জননেত্রী শেখ হাসিনা।

dsc_0580
ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এহতেশামুল আলম বলেন, গত নির্বাচনে বিএনপি অংশ গ্রহন  না করার কারন হল তৃতীয় শক্তিকে ক্ষমতায় আনা। কিন্তু বাংলাদেশের জনগন তা প্রতিহত করে আওয়ামীলীগকে ক্ষমতায় আনে। আওয়ামীলীগ যদি ক্ষমতায় না আসত তবে এদেশে জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসীদের রাজত্ব কায়েম হত। গনতন্ত্র বিপন্ন হত এবং দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকতনা। জ্বালাও পুড়াও করে মানুষ হত্যা করে পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার অপচেষ্টাকে এদেশের জনগন নির্বাচনের মাধ্যমে প্রতিহত করেছে।
আওয়ামীলীগ নেতা ও ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মো: ইকরামুল হক টিটু বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় গনতন্ত্র হত্যাকারী, স্বাধীনতা বিরোধী চক্রের ঠাই হতে পারেনা। তিনি বলেন, গনতান্ত্রিক ধারা সমুন্নত রাখতে হলে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সকলকে ঐক্যবদ্ধ ভুমিকা পালন করতে হবে।

dsc_0575
আলোচনা সভা ও র‌্যালীতে আওয়ামীলীগ নেতা ফজলুর রহমান, শাকিল রানা প্রবাল, অসিত রঞ্জন দত্ত বাবন, এডভোকেট আব্দুর রহমান হোসাইন আল তাজ, মীর শহিদ, ময়মনসিংহ পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ মো: নজরুল ইসলাম, জেলা যুবলীগ নেতা এডভোকেট আজহার উদ্দিন, শাহ শওকত উসমান লিটন, কাজী মঞ্জুর মোর্শেদ রাজু, এইচ এম ফারুক, আবু সাইদ কায়সার দীপু, কাউন্সিলর মো: তাজুল আলম তাজুল, আলহাজ্ব মো: শরাফ উদ্দিন শরাফ, মো: লিয়াকত আলী লিয়াকত, মো: ফারুক হাসান, আওয়ামীলীগ নেতা ও চেয়ারম্যান মো: মোর্শেদুল আলম জাহাঙ্গীর, সাবেক কমিশনার মো: কামাল খান, সুমন ভৌমিক, ১৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মো: আব্দুল মোতালেব, ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি মো: আবুল হোসেন, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বিপ্লব সরকার বিল্লু, আওয়ামীলীগ নেতা মো: সিদ্দিকুর রহমান, মহিলা আওয়ামীলীগ নেত্রী মোছা: আনোয়ারা খাতুন, মাহমুদা হোসেন মলি, শাম্মি আক্তার মিতু, নিনা, রিনেট, জেলা কৃষকলীগ সভাপতি মো: আব্দুল আওয়াল মিন্টু, মহানগর কৃষকলীগ সভাপতি এবিসিদ্দিক, সহ সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার ফিজার তালুকদার, সাধারন সম্পাদক মো: আবুল হাশেম রায়হান সহ বিভিন্ন ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগ, কৃষকলীগ, তাঁতীলীগ সহ হাজার হাজার নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

ব্রেকিং নিউজঃ