| |

ময়মনসিংহ জেলার উন্নয়নের প্রত্যাশায় চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব নিয়ে নতুনযাত্রা শুরু করলো অধ্যাপক ইউসুফ খান

আপডেটঃ 1:25 am | January 30, 2017

Ad

মো: নাজমুল হুদা মানিক ॥ গতকাল ছিল ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি, ডাকসু‘র সদস্য আওয়ামীলীগ নেতা অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠানের ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব গ্রহনের প্রথম দিন। সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান তার এক সময়ের রাজনৈতিক সহকর্মী জেলা যুবলীগের সভাপতি দৈনিক আলোকিত ময়মনসিংহ পত্রিকার সম্পাদক প্রদীপ ভৌমিককে সাথে নিয়ে ময়মনসিংহ জেলা পরিষদ ভবনে আসেন দায়িত্ব বুঝে নিতে। এসময় উপস্থিত জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা এ এইচ এম লোকমান ও জেলা পরিষদ সচিব বনানী বিশ্বাস তাকে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। উপস্থিত জেলা পরিষদের অপরাপর কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীবৃন্দ ও জনতা তাকে করতালি দিয়ে অভিনন্দন জানায়। অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান জেলা পরিষদে উনার নির্ধারিত অফিস কক্ষে কিছুক্ষন বসে পুর্ব থেকে শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন মিলনায়তনে অপেক্ষমান জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্যবৃন্দ, সুধীবৃন্দ ও সাংবাদিকদের সাথে মিলিত হয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এহতেশামুল আলম মহানগর আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে ফুলদিয়ে তাকে শুভেচ্ছা জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা প্রদীপ ভৌমিক, মো: আনোয়ারুল হক রিপন, মীর শহিদ, মো: রফিকুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, বিকাশ সরকার, মো: সিদ্দিকুর রহমান সিদ্দিক, মাহমুদ হোসেন প্রিন্স সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল জেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ ও আইনজীবি নেতৃবৃন্দ সহ নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানকে দায়িত্বভার গ্রহন করার জন্য ফুল দিয়ে অভিনন্দন জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট পীযুষ কান্তি সরকার, এডভোকেট ইমদাদুল হক সেলিম, জেলা যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক শাহ শওকত উসমান লিটন, শিমু আক্তার, বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক মো: ফারুক খান পাঠান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান সহ নির্বাচিত সদস্যগন ২৯ জানুয়ারী সকাল ১১টায় দায়িত্ব গ্রহন গ্রহন করেন। এসময় ফুল দিয়ে নবনির্বাচিত জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদস্যদের বরন করে নেয়া হয় ও উপস্থিত সকলকে মিষ্টিমুখ করানো হয়। পাশাপাশি ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল প্রথমে ও পরে ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এহতেশামুল আলম নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান, সদস্য, উপস্থিত সুধীবৃন্দ ও সাংবাদিকদের  মিষ্টিমুখ করান। ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান বলেন, দেশ বর্তমানে উন্নয়নের মহাসড়কে আছে। বর্তমান প্রেক্ষাপটে কারো স্থির হয়ে বসে থাকার সুযোগ নেই। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সব সময় দেশের উন্নয়ন চিন্তা করেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়নের চিন্তা করেন। তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে ও মানুষের প্রত্যাশা পুরনে সচেষ্ঠ থাকবো।  ময়মনসিংহ জেলা পরিষদে আমি সহ অন্যান্য সদস্যদের নির্বাচিত করায় আমরা ভোটারদের কাছে কৃতজ্ঞ। নির্বাচিত হওয়ার পর আমরা শপথ গ্রহন করেছি। আজ জেলা পরিষদে দায়িত্ব গ্রহন করেছি। আজকের এই দিনটি আমাদের কাছে চির স্মরনীয় হয়ে থাকবে। তিনি বলেন, বর্তমান জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল দায়িত্ব পাওয়ার পর ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের প্রান ফিরে পেয়েছে। আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা নতুন করে গতি পেয়েছে। তিনি বলেন, ময়মনসিংহ জেলা পরিষদে নির্বাচিত সকলেই স্ববলম্বী। জেলা পরিষদের নির্বাচনের মাধ্যমে তাদের রাজনীতির বিকাশ গঠবে। আগামীদিনে তারা হয়ত কেউ মন্ত্রী বা এমপি হবেন। ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এহতেশামুল আলম বলেন, প্রধানমন্ত্রী অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠানকে যে চেতনা নিয়ে মনোনয়ন দিয়েছে ময়মনসিংহ জেলার সার্বিক উন্নয়ন করে তিনি সেই প্রত্যাশা পুরন করবেন। তিনি অতীতের মত ভবিষ্যতেও সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করবেন। তিনি বলেন, ১৩১ বছর পর নির্বাচিত পরিষদের মাধ্যমে জেলা পরিষদ পরিচালিত হচ্ছে। তাই দেশ ও জাতি তাকিয়ে আছে আপনারা কিভাবে এগিয়ে যাবেন। ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল বলেন, ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান ইতিহাসের স্বাক্ষী। তিনি জীবনবাজী রেখে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজ উদ্দিন আহমেদ এর লাশ তৎকালীন সরকারের কাছ থেকে গ্রহন করে কবরে রেখে ছিলেন। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানকে মিষ্টিমুখ করিয়ে তিনি বলেন, আজকের মিষ্টি যেন চিরদিন মিষ্টিময় হয়ে থাকে। অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন পর্বের পরবর্তীতে  ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠানের সভাপতিত্বে জেলা পরিষদের ১ম সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা এ এইচ এম লোকমান এর পরিচালনায় সভায় জেলা পরিষদ সচিব বনানী বিশ্বাস, জেলা পরিষদ সদস্য আলহাজ্ব বীরমুক্তিযোদ্ধা মমতাজ উদ্দিন মন্তা, অধ্যাপক এ এস এম মজিবুর রহমান, মো: আব্দুল খালেক, মো: আসাদুজ্জামান আকন্দ, মো: মোজাম্মেল হক, মো: রুহুল আমিন, মো: খাইরুল বাশার, জ্যোৎস্না আরা মুক্তি, আব্দুল্লাহ আল মামুন উজ্জল, আলহাজ্ব মো: তাজুল ইসলাম বাবলু, মো: একরাম হোসেন, মো: আবু বকর সিদ্দিক, মো: মুহিবুল হক, মো: মোস্তফা কামাল, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য মোছা: আরজুনা কবীর, মোছা: আছমাউল হোসনা, মোছা: ফারজানা শারমিন, মোছা: আঞ্জুমানারা খাতুন, মোছা: দিলরুবা কাজল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভার শুরুতে জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা এ এইচ এম লোকমান বলেন, জেলা পরিষদের নির্বাচিতদের দায়িত্ব গ্রহন ও প্রথম সভার দিন থেকে ৫বছর শুরু হবে।

ব্রেকিং নিউজঃ