| |

শৈশব ও কৈশোরের দিনগুলি সবসময় থাকে আনন্দময় বাল্য বন্ধুদের আড্ডায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইউসুফ খান

আপডেটঃ 1:17 am | February 01, 2017

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী : ময়মনসিংহ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান‘কে জেলা পরিষদের কার্যালয়ে এসে অভিনন্দন জানায় তার স্কুল সহপার্টি ও বাল্য বন্ধুরা। এসময় তারা অতীতের স্মৃতিরোমন্থন করে এবং আড্ডায় মেতে উঠে।
মঙ্গলবার (৩১ জানুয়ারি) দুপুরে অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠানের সাথে স্কুল সহপার্টি ও বাল্য বন্ধুরা চা-বিস্কিটের আড্ডায় জমে উঠে।
রোববার (২৯ জানুয়ারি) দায়িত্ব গ্রহন করার পর হঠাত স্কুল সহপার্টি ও বাল্য বন্ধুদের সাথে দেখা হলে স্মৃতিরোমন্থন হয়ে অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান বলেন, মানুষের জীবনে শৈশব ও কৈশোরের দিনগুলি সবসময় থাকে আনন্দময়। এখানে চাওয়া পাওয়ারমত কোন স্বার্থ জড়িত থাকেনা। তাই সেই আনন্দময় দিনগুলিকে কোনদিন ভোলা যায়না। অতীতের সেই সমস্থ ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলি মনে পড়লে মনে হয় আমরা সেই দিনগুলিতে ভাল ছিলাম। ছিলনা কোন স্বার্থ, বিদ্ধেষ ও হিংসা। শুধু লেখাপড়া আর খেলা ছাড়া আমাদের আর কিছুই চাওয়া পাওয়ার ছিলনা। আমি আশা কবর অতীতের মত বর্তমান ও ভবিষ্যতেও আমাদের এই নি:স্বার্থ ভালবাসা অটুট থাকবে।
অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান আবেগ জড়িত কন্ঠে বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসাবে ময়মনসিংহের জেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসাবে মনোনয়ন দিয়ে ছিল। তোমরা যারা বিদেশে কর্মরত আছ এবং বাংলাদেশের ভিতরে বিভিন্ন পেশার সাথে যুক্ত তারাও আমার নির্বাচনের সময় তোমাদের মুল্যবান সময় নষ্ট করে আমাকে জয়ী করার জন্য চেষ্টা করেছ এবং বিভিন্ন ভাবে সাহায্য সহযোগিতা করেছ। তাই আমি আমার বন্ধুদের কাছে এর জন্য চিরঋনী।
এসময় তার বন্ধুদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সচিব হুমায়ুন, ব্যবসায়ী সেলিম, মনোয়ার, এড. ফারুক, দৈনিক আলোকিত ময়মনসিংহ পত্রিকার সম্পাদক ও এক সময়ের রাজনৈতিক সহকর্মী ঘনিষ্ঠ বন্ধু প্রদীপ ভৌমিক, ইঞ্জি: বাদল, আমেরিকা প্রবাসী সরাজ এবং আফ্রিকা প্রবাসী শেলী।

ব্রেকিং নিউজঃ