| |

যেখানেই থাকি মালিক শ্রমিকদের সাথে থাকতে চাই

আপডেটঃ 8:29 pm | February 19, 2017

Ad

মো: নাজমুল হুদা মানিক ॥ ময়মনসিংহ জিলা মটর মালিক সমিতির ত্রি-বার্ষিক সাধারন সভা শেরপুরের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভুমি গজনী অবকাশ কেন্দ্রে ১৮ ফেব্রয়ারী দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। ময়মনসিংহ জিলা মটর মালিক সমিতির ত্রি-বার্ষিক সাধারন সভায় সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব বীরমুক্তিযোদ্ধা মমতাজ উদ্দিন মন্তার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতি ঢাকা বিভাগের সাধারন সম্পাদক ও দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ীক সংগঠন এফবিসিসিআই এর পরিচালক আলহাজ্ব আমিনুল হক শামীম। তিনি বলেন, ময়মনসিংহ মালিক সমিতির ব্যার্থতা গুচিয়ে সফলতার দিকে হাত বাড়ান। ময়মনসিংহের শ্রমিকরা বিশাল অট্রালিকা বিল্ডিং নির্মান করে শ্রমিকদের জন্য ইতিহাস সুষ্টি করেছেন। সারাদেশে শ্রমিক সংগঠনের জন্য এত বড় হাইরাইজ বিল্ডিং আর কোথাও নেই। আলহাজ্ব আমিনুল হক শামীম বলেন, ময়মনসিংহের শ্রমিকরা যদি পারে তবে মালিকরা কেন পারবেনা। তিনি বলেন, ময়মনসিংহে মালিক সমিতির উদ্যোগে হাসপাতাল নির্মান দীর্ঘদিনের দাবী। ২০১৭ সালের মধ্যেই হাসপাতালের কাজ শুরু করার জন্য তিনি নবনির্বাচিত কর্মকর্তাদের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, আগে গাড়ী বন্ধ করে দাবী আদায় করতে হতো। বর্তমানে সেই অবস্থা আর নেই। তিনি বলেন, যেখানেই থাকি মালিক শ্রমিকদের সাথে থাকতে চাই। সাধারন সভায় তিন বছরের বার্ষিক রিপোর্ট পেশ করেন ও অনুমোদন নেন সমিতির মহাসচিব মো: মাহবুবুর রহমান। সমিতির কোচ বিভাগের সম্পাদক বিকাশ সরকারের পরিচালনায় ময়মনসিংহ জিলা মটর মালিক সমিতির ত্রি-বার্ষিক সাধারন সভায় বক্তব্য রাখছেন সমিতির সহ সভাপতি মো: মঞ্জুরুল হক তালুকদার, মো: আশরাফ হোসেন এলান, অধ্যাপক শ্যামল চন্দ্র দত্ত, মো: আবু মিয়া, মো: মুনির চৌধুরী, মো: আবু মুসা সরকার, সাবেক মহাসচিব মো: রবিউল হোসেন শাহিন, বর্তমান যুগ্ন সাধারন সম্পাদক বিভাস সরকার লিন্টু, অতি: সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা মো: আলাউদ্দিন, সদস্য আলহাজ্ব মো: নুরুল ইসলাম, বীরমুক্তিযোদ্ধা মো: আজিজুল হক ইদু, মো: মাহফুজুর রহমান, মো: ইকরামুল হক তালুকদার, মো: শফিকুল ইসলাম, আলহাজ্ব মো: এমদাদুল হক মন্ডল, ময়মনসিংহ মটরযান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো: নজরুল ইসলাম প্রমুখ। সাধারন সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন মো: নেল কবীর ও গীতা পাঠ করেন অধ্যাপক শ্যামল চন্দ্র দত্ত। সাধারন সভায় ময়মনসিংহ জিলা মটর মালিক সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব বীরমুক্তিযোদ্ধা মমতাজ উদ্দিন মন্তা বলেন, মালিক শ্রমিক ঐক্য সমুন্নত রাখতে চাই। সম্প্রতি সময়ে মালিক শ্রমিক ঐক্য থাকার কারনে ১দির জন্যও ময়মনসিংহে বাস বন্ধ থাকেনি। এটির বড় অবদান ময়মনসিংহ জিলা মটর মালিক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব আমিনুল হক শামীম সাহেবের। তিনি বলেন, টাকা ও স্বার্থের জন্য কোন দিন গাড়ী ছাড়ি নাই বা আটকাই নাই। আলহাজ্ব মমতাজ উদ্দিন মন্তা বলেন, ময়মনসিংহ মালিক সমিতির উদ্যোগে হাসপাতাল করার চেষ্টা চলছে, জায়গার জন্য করা যাচ্ছেনা। তিনি শামীম সাহেবের কাছে আবেদন রাখেন, ময়মনসিংহে মালিকদের জন্য একটি হাসপাতাল নির্মান করে স্বর্নাক্ষরে ইতিহাসে নামা লিখিয়ে রাখুন। ময়মনসিংহ জিলা মটর মালিক সমিতির ত্রি-বার্ষিক সাধারন সভায় মালিক সমিতির মহাসচিব মো: মাহবুবুর রহমান বলেন, আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসলে স্বাধীনতা ও বিজয়ের কথা এসে যায় আর ময়মনসিংহ মটর মালিক সমিতির কথা আসলে আলহাজ্ব আমিনুল হক শামীমের কথা এসে যায়। কারন তিনি তার জীবন যৌবন দিয়ে ময়মনসিংহ জিলা মটর মালিক সমিতিকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। ময়মনসিংহ জিলা মটর মালিক সমিতির কোচ বিভাগের সম্পাদক বিকাশ সরকার বলেন, ময়মনসিংহ জিলা মটর মালিক সমিতি ও জেলা মটরযান কর্মচারী শ্রমিক ইউনিয়নের মধ্যে বর্তমানে যে সমন্বয় চলছে এটিও শামীম সাহেবের অবদান। যার কারনে ময়মনসিংহে পরিবহন সেক্টরে সর্বসময় শান্তি শৃংখলা বিরাজ করছে। সাধারন সভায় পুর্বের কমিটির বিলুপ্ত করে প্রথম অধিবেশন সমাপ্তির পর দ্বিতীয় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতি ঢাকা বিভাগের সাধারন সম্পাদক ও দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ীক সংগঠন এফবিসিসিআই এর পরিচালক আলহাজ্ব আমিনুল হক শামীম। দীর্ঘ সময় আলোচনা ও পর্যবেক্ষন শেষে আগামী তিন বছরের জন্য সভাপতি আলহাজ্ব মমতাজ উদ্দিন মন্তা, সহ সভাপতি মো: আবু মুসা সরকার, মো: আবু মিয়া, মো: আশরাফ হোসেন এলান, অধ্যাপক শ্যামল চন্দ্র দত্ত, বীরমুক্তিযোদ্ধা মো: আব্দুল খালেক শিকদার, মো: মঞ্জুরুল হক তালুকদার, বীরমুক্তিযোদ্ধা মো: আজিজুল হক ইদু, জাহাঙ্গীর আহমেদ, মহাসচিব মো: মাহবুবুর রহমান মাহবুব, কোচ বিভাগের সম্পাদক বিকাশ সরকার, বাস বিভাগের সম্পাদক আলহাজ্ব শামসুল আলম তালুকদার, মিনিবাস বিভাগের সম্পাদক সোমনাথ সাহা, ট্রাক বিভাগের সম্পাদক মো: রবিউল হোসেন শাহীন, অর্থ সম্পাদক মো: মাহবুবুর রহমান সেলিম সহ ৭৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ