| |

মুক্তাগাছার সংসদ সদস্য মুক্তির মেয়ের বিয়ে সম্পর্কে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় ময়মনসিংহে সংবাদ সম্মেলন

আপডেটঃ 8:33 pm | February 19, 2017

Ad

স্টাফ রিপোর্টার মুক্তাগাছা আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য সালাহ উদ্দিন মুক্তির মেয়ের বিয়ে সম্পর্কে নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় ময়মনসিংহের একটি রেস্টোরেন্টে ১৯ ফেব্রয়ারী বিকাল সাড়ে ৫টায় সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংসদ সদস্য সালাহ উদ্দিন মুক্তি। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত শুক্রবার১৭ ফেব্রয়ারী আমার দুই মেয়ের শুভবিবাহ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সুষ্ঠু সুন্দর ভাবে আমার অতি আদরের দুই মেয়ের বিবাহ সম্পন্ন হওয়ায় মহান আল্লাহতাআলার কাছে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয় আমার দুই মেয়ের বিয়ে নিয়ে কতিপয় সংবাদ মাধ্যমে অসভ্য বিভ্রান্তিকর সংবাদ পরিবেশন করেছে। যা আমার পরিবার এবং আমার দল জাতীয় পার্টির ভাবমুর্তির ক্ষুন্নের অপচেষ্টা মাত্র। আমার ধারনা একটি কুচক্রি মহলের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে এসব সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। যা আদৌ সত্য নয়। মিডিয়ার এমন খবর প্রকাশে আমার নির্বাচনী এলাকা মুক্তাগাছার মানুষও বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন,আমি মুক্তাগাছা আসনের সংবাদ সদস্য,তথ্য মন্ত্রনালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য এবং জাতীয় পার্টির কেন্দ্রিয় যুগ্নমহাসচিব। আমি বাল্য বিয়ে,মাদক বিরোধী আন্দোলনসহ উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডে সদা সচেষ্ট,যা আপনার অবগত আছেন। তিনি বলেন,সাংবাদিকরা জাতিয় বিবেক,সমাজের সব খবরই আপনাদের জানা। দেশের ২টি বৃহৎ রাজনৈতিক দলকে পাশ কাটিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে মুক্তাগাছার মানুষের কাছে জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকায় একটি মহল ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার এবং আমার পার্টির জনপ্রিয়তাকে নষ্ট করার লক্ষে পারিবারিক একটি অনুষ্ঠানকে পুজি করে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে আমাকে হেয় করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। রাজনীতিতে প্রতিযোগিতা থাকবে কিন্তু পারিবারিক অনুষ্ঠানকে নিয়ে প্রতিহিংসার লিপ্ত হওয়ার বিষয়টি মুক্তাগাছার মানুষ ভালো ভাবে গ্রহন করবেনা বলেই আমার বিশ্বাস। তিনি বলেন,আমার বড় মেয়ে মাসকুরা মীম পায়েল আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের জীব বিদ্যা বিভাগে অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী। তার বয়স বর্তমানে ২০ বছর মাস। আমার ছোট মেয়ে আফসানা মীম প্রিয়ন্তীর জন্ম ১৯৯৮ সালের ১লা জানুয়ারী। বর্তমানে তার বয়স ১৯ বছর এক মাস ১৮ দিন। আমার ছোট মেয়ে প্রিয়ন্তী স্থানীয় নিজাম উদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪র্থ শ্রেণীতে পড়াশোনা করেছে। প্রিয়ন্তী ৪র্থ শ্রেণী পাস করার পর তাকে ময়মনসিংহ শহরের গলগন্ডা এলাকায় মিফতাউল উলুম জান্নাত মহিলা মাদ্রাসায় নূরানী শ্রেনীতে ভর্তি করি। পরে সেখান থেকে ৭ম শ্রেণী পাস করার পর প্রিয়ন্তীকে মুক্তাগাছার রঘুনাথপুর দাখিল মাদ্রাসায় ৮ম শেণীতে ভর্তি করি। বর্তমানে প্রিয়ন্তী সেই মাদ্রাসায় দশম শ্রেণীতে অধ্যয়নরত। আমার দুই মেয়ের বয়সই ১৮ এর উপরে। নিয়ে বিভ্রান্তির কোন অবকাশ নেই। নিয়ে কার কোন সন্দেহ থাকলে আমি  তাকে চ্যালেঞ্জ জানচ্ছি। আমি আমার সন্তানদের নিয়ে নোংরা রাজনীতি না করার জন্য সকল মহলকে অনুরোধ করছি। আমি অনুরোধ করব যে সকল মিডিয়া কোন মহলের ¦ারা প্রভাবিত হয়ে সকল বিভ্রান্তিকর খবর প্রকাশ করেছেন,সে সকল মিডিয়া সত্য তুলে ধরে দুঃখ প্রকাশ করে বিবৃতি প্রকাশ করবেন। আমি আর অনুরোধ করবো কোন সংবাদ প্রকাশের আগে ভালো ভাবে তথ্য যাচাই করে বস্তুনিষ্ট ভাবে সংবাদ প্রকাশের জন্য। সংবাদ সম্মেলনে ময়মনসিংহ শহর জাতীয় পার্টির সভাপতি মো: মোশাররফ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন|

ব্রেকিং নিউজঃ