| |

ধর্ম নিয়ে কাউকে ছিনিমিনি খেলতে দেওয়া হবে না-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইসলামে মানুষ নয় একটি পিপড়া হত্যাকেও সমর্থন করে না-আল্লামা ফরীদ মাসউদ

আপডেটঃ 8:18 pm | March 08, 2017

Ad

আব্দুল্লাহ আল আমীনঃ  ‘বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক চেতনার দেশ, এখানে ধর্ম নিয়ে কাউকে ছিনিমিনি খেলতে দেওয়া হবে না। ধর্মের নামে কেউ জঙ্গিবাদ সৃষ্টির চেষ্টা করলে তাকে কঠোর হাতে দমন করা হবে’। বুধবার (০৮ মার্চ) দুপুরে রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা ময়দানে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি বলেন, আমরা এখন কোনো চ্যালেঞ্জকেই আর চ্যালেঞ্জ মনে করি না। কারণ বাংলাদেশের জনগণ আমাদের সঙ্গে রয়েছে। জনগণকে সঙ্গে নিয়েই আমরা সব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করবো। শান্তির ধর্ম ইসলামকে বাংলাদেশে কোনোভাবেই জঙ্গিধর্ম বানাতে দেওয়া হবে না। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বোমাবাজি করে, টার্গেট কিলিং করে, আগুনসন্ত্রাস করে, মানুষ হত্যা করে বেহেশতে যাওয়া যাবেনা। যারা এসব করে শান্তির ধর্মকে জঙ্গিধর্ম বানাতে চায় তারা ইসলামের শত্রু। ইসলামের জঙ্গিবাদের কোনো ঠাঁই নেই। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা যখন নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতু করছি, দারিদ্রসীমা অতিক্রম করছি, একের পর এক মেগা প্রজেক্ট নিয়ে উন্নয়নের মহাসড়কে উঠে এগিয়ে যাচ্ছি তখন একটি গোষ্ঠী জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করে আমাদের গতিরোধ করতে চাইছে। কিন্তু আমাদের দেশের মানুষ ভাতৃপ্রতীম। ধর্ম যার যার দেশ সবার। তারা সবাই নিজের নিজের ধর্ম পালন করেন অন্যদেরও ধর্ম পালন করতে দেন। ইসলামকে যেভাবে জঙ্গিধর্ম বানানোর অপচেষ্টা চলছে তা কোনোদিনও সফল হবেনা। এক সময় বলা হতো দেশের ইসলামী ও কওমি মাদ্রাসার ছাত্ররা জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করছে। কিন্তু আমরা দেখেছি তা ভুল। যারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিশ্বাস করেনি যারা মুক্তিযুদ্ধ চায়নি সেই দেশি ও আন্তর্জাতিক চক্রান্তকারীরাই উচ্চশিক্ষিত যুবকদের ধর্মের নামে বিভ্রান্ত করে দেশের বিরুদ্ধে কাজে লাগাচ্ছে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডাকে দেশের সব শ্রেণীর মানুষ ঘুরে দাঁড়িয়েছে। এ জন্যই আমার জঙ্গিবাদ নির্মূল করতে না পারলেও নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি। আপনাদের কারণেই জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রধানমন্ত্রী আজ বিশ্বদরবারে প্রশংসিত। তাই আমি বলতে চাই যে, দেশের মানুষ সন্ত্রাস ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে ঘুরে দাঁড়াতে পারে সেই দেশের মাটিতে কোনো দিনই জঙ্গিবাদ প্রতিষ্ঠিত হতে পারেনা। ধর্মের নামে নাশকতা করলে কেউ পার পাবে না। নাশকতা করলে কাউকেই আর ছাড় দেওয়া হবে না। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ বলেন, ইসলাম একটি উদার, ভালোবাসার ধর্ম। এক শ্রেণীর ইহুদি চক্রের একটি দল বাংলাদেশের শান্তিপ্রিয় মানুষকে বিভ্রান্তে রাখার চেষ্টায় সন্ত্রাস জঙ্গীবাদের মতো কর্মকান্ডে জড়িত করে বিশ্বের কাছে বাংলাদেশকে খাটো করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। এ থেকে সতর্ক হয়ে সন্ত্রাস জঙ্গীবাদ মোকাবেলায় মসজিদের ঈমাম, মাদ্রাসার শিক্ষক, দেশের আলেম সমাজকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। উল্লেখ্য দেশের লাখো আলেমের স্বাক্ষরিত সন্ত্রাস জঙ্গীবাদ বিরোধী ফতোয়া প্রকাশ করে জাতিসঙ্গেও তিনি তুলে ধরেছেন বাংলাদেশের ভাবমূর্তি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. শফিকুল ইসলাম।  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- শোলাকিয়া ঈদগাহের গ্রান্ড ইমাম মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ, রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, রাজশাহী-১ আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরী, রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন, রাজশাহী-৫ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল ওয়াদুদ দারা, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য বেগম আখতার জাহান, রাজশাহীর সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর-রহমান, রাজশাহী জেলা প্রশাসক কাজী আশরাফ উদ্দীন, রাজশাহী রেঞ্জের উপ-পুলিশ মহাপরিদর্শক (জিআইজি) খুরশীদ হোসেন, ঢাকা রামকৃষ্ণ মিশনের অধ্যক্ষ ধুবেশা নন্দজী মহারাজ, রাজশাহী ক্যাথলিক চার্চের ফাদার জেভার্স রোজারিও, সাবেক সংসদ সদস্য মেরাজ উদ্দিন মোল্লা প্রমুখ।

ব্রেকিং নিউজঃ